কলাপাড়ায় ইট বহনকারী ট্রলির অবাধ চলাচল

প্রকাশিত: ৬:৫০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৮ | আপডেট: ৬:৫০:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৮

কলাপাড়ায় ইট বহনকারী ট্রলির অবাধ চলাচল ॥
ক্রমশ: ভেঙ্গে যাচ্ছে সড়ক ॥ ঝুকিপূর্ন হয়ে উঠেছে চলাচল ॥

পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌরশহরসহ উপজেলার আশেপাশে গড়ে ওঠা ইটভাটার সড়কগুলোতে প্রভাবশালী ইটভাটা মালিকদের ইট বহনকারী ট্রলির অবাধ চলাচলে ক্রমশ: ভেঙ্গে যাচ্ছে সড়ক। এদের বেপরোয়া চলাচলে চরম ঝুকিপূর্ন হয়ে পড়েছে শিক্ষার্থীসহ সাধারন মানুষের পথ চলাচল। অবস্থা এমন যে পৌরশহরের আবাসিক এলাকাসহ মহাসড়ক ও গ্রামীন সড়কে প্রতিনিয়ত এসব ভারী যান চলাচলে সড়ক গুলো ভেঙ্গে যাত্রীবাহী যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়লেও এসব দানবীয় যান চলাচল বন্ধে কর্তৃপক্ষের কোন উদ্দোগ নেই।
স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধিসহ রাজনৈতিক ব্যক্তিরা ইটভাটা ব্যবসার সাথে জড়িত থাকায় এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। একদিকে চলছে সড়ক উন্নয়ন কাজ, অপরদিকে দানবীয় যান চলাচলে ফের ভেঙ্গে যাচ্ছে সড়ক।কলাপাড়া পৌরশহরের অধিকাংশ সড়কসহ গ্রামীন কাঁচা সড়ক, মহাসড়কে এসব দানবীয় ভারী যানবাহন চলাচল ও সড়কের উপর ইট, কাঁচামাটি ফেলাসহ নির্মান সামগ্রী প্রস্তুত করার কারনে অধিকাংশ সড়ক দেবে গিয়ে ফাটল দেখা দিয়েছে। কোথায়ও কোথাযও সৃস্টি হয়েছে ছোট-বড় গর্তের সৃষ্টি।
পৌরসভা সূত্রে জানা যায়, কলাপাড়া পৌর শহরে প্রায় ৩০ কি.মি. সড়ক রয়েছে। এরমধ্যে রোড ওয়ান ও রোড টু প্যাকেজে দাতা সংস্থা এডিবি’র অর্থায়নে সিটিইআইপি প্রকল্পের অধীনে প্রায় ১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মান কাজ চলছে ১৫ কি.মি. সড়কের। এসকল কাজের দরপত্র আহবান, কার্যাদেশ সহ নির্মান কাজ যথাযথ ভাবে সম্পন্ন করার কথা বলছে সূত্রটি। এ বিষয়ে কলাপাড়া পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও পৌর আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন কবির জানান, পৌরশহরের সড়ক রক্ষার স্বার্থে শহরের অভ্যন্তরে ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধে পৌরসভার সিদ্ধান্ত রয়েছে। সড়ক রক্ষার স্বার্থে পৌর কর্তৃপক্ষ ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার কথা বলেন তিনি।