পঞ্চগড়ে গণহত্যার উপর নির্মিত নাটক তীষ্ঠ ক্ষণকাল মঞ্চায়ন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ২:৪৪ অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০২২ | আপডেট: ২:৪৪:অপরাহ্ণ, জুন ১২, ২০২২

মো.সফিকুল আলম দোলন,জেলা প্রতিনিধি,পঞ্চগড় ঃ

মুজিব শতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে দেশের ৬৪ জেলায় গণহত্যার উপর নির্মিত নাটক তীষ্ঠ ক্ষণকাল ১১ জুন শনিবার সন্ধ্যায় পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার পাঁচপীর ইউনিয়নের পাঁচপীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। পঞ্চগড় জেলা শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীরা এই নাটক পরিবেশন করেন। রেলপথ মন্ত্রী ও পঞ্চগড় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট মো.নূরুল ইসলাম সুজন এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে নাটকের উদ্বোধন করেন এবং দর্শকের সারিতে বসে ১৯৭১ সালের স্বাধীনতার যুদ্ধের সময় পাকহানাদার বাহিনী নিরস্ত্র বাঙ্গালীর উপর যে বর্বরোচিত গণহত্যা চালিয়েছিল সেই গণহত্যার উপর নির্মিত নাটক প্রত্যক্ষ করেন।

 

এসময় মন্ত্রী মহোদয়ের সাথে অন্যানের মধ্যে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক মোঃ জহুরুল ইসলাম,পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী,জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ প্রশাসক আনোয়ার সাদাত স¤্রাট.বোদা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফারুক আলম টবি,উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.সোলেমান আলী,পৌর মেয়র এ্যাডভোকেট ওয়াহিদুজ্জামান সুজা,বোদা থানার ওসি আবু সাঈদ চৌধুরী,মন্ত্রীর এপিএস রাসেদ প্রধান,ইউপি চেয়ারম্যান অজয় রায় উপস্থিত ছিলেন। নাটকটি দেখতে হাজার হাজার মানুষ বিদ্যালয় মাঠে উপস্থিত হয় এবং নাটক প্রত্যক্ষ করে। সে সময় স্বামী হারা অনেক বিধবাও নাটক দেখতে বিদ্যালয় মাঠে উপস্থিত হয়। উল্লেখ্য ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ২৩ এপ্রিল পাকহানাদার বাহিনী ও তাদের এদেশীও দোসর রাজাকাররা পঞ্চগড় জেলার বোদা উপজেলার পাঁচপীর ইউনিয়নের ঢাপঢুপ বিলে ওই এলাকার স্বাধীনতাকামী প্রায় সাড়ে তিন হাজার নিরিহ নিরস্ত্র বাঙ্গালীকে হত্যা করে ঢাপঢুপ বিলে নিক্ষেপ করে। এখনও ওই ঢাপঢুপ বিলে মানুষের হাড় ও মাথার খুলি পাওয়া যাচ্ছে। রেলপথ মন্ত্রী ও পঞ্চগড় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট মো.নূরুল ইসলাম সুজন এমপি ও পঞ্চগড় জেলার সাবেক জেলা প্রশাসক বনমালি ভৌমিক ঢাপঢুপ বিলে গণহত্যার জায়গাটিতে একটি স্মৃতিফলক স্থাপন করেন। তবে এলাকাবাসির দাবী ওই স্থানে স্মৃতিসৌধ নির্মাণের।

Print Friendly, PDF & Email