লঞ্চে অগ্নিকাণ্ড : এখনও খোঁজ মেলেনি তালতলীর দাদি-নাতির

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৬:১১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৫, ২০২১ | আপডেট: ৬:১১:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৫, ২০২১

ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পুলিশের নিখোঁজের তালিকায় নাম রয়েছে বরগুনার তালতলী উপজেলার রেখা বেগম (৩৭) ও তার নাতি মো. জুনায়েদ শিকদারের (৭)। তারা বেঁচে আছেন নাকি মারা গেছেন সে ব্যাপারে কিছু জানেন না স্বজনরা। তাদের আহাজারি যেন থামছেই না।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বরগুনা জেলা প্রশাসন ২২ জন নিখোঁজের খসড়া তালিকা প্রকাশ করেন। সেখানে তালতলী উপজেলার ছোটবগী পিকে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পাশের বাসিন্দা কামাল শিকদারের স্ত্রী রেখা বেগম ও তার নাতি জুনায়েদের নাম রয়েছে। তারা দুর্ঘটনার শিকার লঞ্চে ঢাকা থেকে বরগুনায় যাচ্ছিলেন।

বরগুনা জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জরুরি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। এ ছাড়া নিখোঁজ ও অগ্নিদগ্ধদের তালিকা করতে গতকাল বিকেল থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত তালতলী উপজেলার দুইজনসহ বরগুনা জেলায় ২২ জন নিখোঁজ রয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে নলছিটি উপজেলার সুগন্ধা নদীর পোনাবালীয়া ইউনিয়নের দেউরী এলাকায় বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ লঞ্চের ইঞ্জিন রুম থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে পুরো লঞ্চটিতে আগুন ধরে যায়। এখন পর্যন্ত ৪১ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। দগ্ধ হয়ে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৭০ জন এবং ঢাকায় নেওয়া হয়েছে ১৬ জনকে।

Print Friendly, PDF & Email