বাবুগঞ্জে ইলিশ অভিযানের ট্রলারে জেলেদের দুই দফা হামলা, এসিল্যান্ড’র দূরদর্শিতায় রক্ষা

আরিফ হোসেন আরিফ হোসেন

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২১ | আপডেট: ১২:১৯:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২১

বাবুগঞ্জে ইলিশ অভিযানের ট্রলারে জেলেদের দুই দফা হামলা, এসিল্যান্ড’র দূরদর্শিতায় রক্ষা

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি : মা ইলিশ রক্ষা অভিযানের ২২ দিনের বাকি মাত্র ৩ দিন। অভিযানের শেষ পর্যায়ে এসে বেপরোয়া আচরণ করছে জেলেরা। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ট্রলার যোগে মৎস্য অভিযানে নামেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি), নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. মিজানুর রহমান ও তার টিম। দুই দফায় তার ট্রলারে জেলেদের হামলা হলেও কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিজানুর রহমান এর দূরদর্শিতায় অল্পের জন্য শেষ রক্ষা হয় তাদের। পুলিশের সদস্য সংখ্যা কম থাকায় এ ধরনের হামলার সাহস দেখিয়েছে জেলেরা বলে ধারনা করছেন অভিযানে অংশগ্রহনকারী কয়েকজন।
জানাযায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে আড়িয়াল খাঁ নদীর কাঠেরচর এলাকায় জেলেদের জাল ফেলার খবর শুনে সেখানে যায় এসিল্যান্ড মো. মিজানুর রহমান ও তার টিম। জেলেরা তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে লগি-বইঠা নিয়ে তেরে আসে ও ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। তখন পাল্টা ধাওয়া দিলে জেলেরা ধান ক্ষেতের মধ্য লুকিয়ে পরে। একই ঘটনা ঘটে চর ডাকাতিয়া এলাকায়। সেখানে মহিলারাও হামলার প্রস্তুতি নিয়েছিলো। পরে পরিস্থিতি সামলে সেখান থেকে ৩ টি ইঞ্জিন চালিত ট্রলার ও বিপুল পরিমান জাল জব্দ করা হয়। একদিনের অভিযানে মোট ৪ টি ট্রলার ও ৬০ হাজার মিটার জাল উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় দুইজন জেলেকে।
সহকারী কমিশনার (ভূমি), নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. মিজানুর রহমান বলেন, জেলেরা বেপরোয়া হয়ে উঠছে। পর্যাপ্ত পোশাক ধারী পুলিশ না থাকায় জেলেরা হামলা চালানোর সাহস দেখায়িছে। তবে গুলি চালানোর মত পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে আমরা কোন ছাড় দেবোনা।

Print Friendly, PDF & Email