কলাপাড়ায় মাদ্রাসার অনিয়মের বিরুদ্ধে লিফলেট বিতরন করায় একজনকে কুপিয়ে জখম

মনিরুল ইসলাম মনিরুল ইসলাম

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ৭:৩৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৩৬:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৪, ২০১৮
কলাপাড়ায় মাদ্রাসার অনিয়মের বিরুদ্ধে লিফলেট বিতরন করায় একজনকে কুপিয়ে জখম

কলাপাড়ার অক্কেলপুর সিনিয়র মাদ্রাসার নানা অনিয়মের বিরুদ্ধে লিফলেট বিতরনকে কেন্দ্র করে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে নুর সাইদ হাওলাদার (৪০) কে। মঙ্গলবার আনুমানিক বেলা দশটায় হাজীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে তাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়। স্থানীয়রা তাকে উদ্বার করে দ্রুত কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে আসলে অবস্থার অবনিত হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও আহতের স্বজনদের সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের আক্কেলপুর সিনিয়ার মাদ্রার সুপার ও পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মধ্যে বিরোধের জের ধরে নানা অনিয়ম চলে আসছিল। পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি গ্রুপের শিক্ষকরা পাঠদানে উপস্থিত না থাকায় শিক্ষার্থীদের পাঠদান ব্যাহত হচ্ছিল। নিয়মিত পাঠদানসহ সকল অনিয়মের বন্ধের দাবীতে সচেতন অবিভাবক মহলের ব্যানারে লিফলেট বিতরনের সময় একই এলাকার সোহাগ, কেনান ও মিরাজ দেশীয় ধারালো অ¯্র দিয়ে নুর সাইদ হাওলাদারকে উর্পযুপরি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। হাসপাতালের জরুরী বিভাগ সূত্র জানায়, আহতের বাম হাতের তিন চতুৃথাংশ এবং বাম পায়ের হাড়সহ কেটে গেছে।
আহত নুর সাইদ জানায়, হাজীপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে দোকানে বসে চা পান করার সময় মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি রুহুল আমিন হাওলাদারের নেতৃত্বে তার ছেলে কেনান, সোহাগ, মিরাজ অর্তকিতে তার উপড় হামলা চালায়। এবিষয়ে রুহুল আমিন হাওলাদার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, লিফলেট বিতরনকে কেন্দ্র করে একটি গন্ডগোলের সংবাদ পেয়েছি। তবে আমি উপস্থিত ছিলাম না।
কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আলাউদ্দিন মিলন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। যথাযথ আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে।
##