বরগুনার আমতলীতে বৃদ্ধা মাকে ছেলের নির্যাতন থানায় অভিযোগ।পুড়িয়ে মারার হুমকি। পালিয়ে বেড়াচ্ছেন মা।

আল নোমান আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১:১৪ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৯, ২০২১ | আপডেট: ১:১৪:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৯, ২০২১

প্রতারনা করে জমি লিখে নেয়া ও নির্যাতন সইতে না পেরে ছেলে জসিম মোল্লার বিরুদ্ধে মা চন্দ্রা ভানু (৮৫) থানা লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ দেয়ায় পরে মাকে ছেলে জসিম পুড়িয়ে মারার হুমকি দিয়েছে। ছেলের ভয়ে মা প্রতিবন্ধি মেয়ে নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। ঘটনা ঘটেছে বরগুনার আমতলী উপজেলার ঘটখালী গ্রামে।
জানাগেছে, উপজেলার ঘটখালী গ্রামের মৃত্য মেনাজ উদ্দিন মোল্লা ২০১০ সালে মারা যান। তার মুত্যূতে স্ত্রী চন্দ্রা ভানু ২২ শতাংশ জমি পায়। ছোট ছেলে জসিম উদ্দিন মোল্লা বৃদ্ধা মায়ের কাছে দুই শতাংশ জমি দাবী করেন। মা ছেলেকে দুই শতাংশ জমি দিতে রাজি হয়। কিন্তু ২০১৩ সালে ছেলে জসিম মায়ের সাথে প্রতারনা করে সমুদয় জমি দলিল করে নেন। এরপর মাকে বাড়ী থেকে তাড়িয়ে দেয়। মা জমি লিখে নেয়ার বিষয়টি কাউকে জানাননি। জমি লিখে নেয়ার পর থেকে বৃদ্ধা মাকে প্রায়ই জসিম অকথ্য ভাষায় গালিগালিজসহ লাঞ্ছিত করে আসছে এমন অভিযোগ মা চন্দ্রা ভানুর। ছেলে নির্যাতন সইতে না পেরে জমি লিখে নেয়ার বিষয়টি অন্য ছেলেদের জানিয়ে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ছেলে জসিম গত রবিবার মাকে মারধর করে। এদিকে মাকে মারধর ও জমি লিখে নেয়ার বিষয়ে ভাই নাশির উদ্দিন মোল্লা ও বশির মোল্লা প্রতিবাদ করলে তাদের নামে থানায় মিথ্যা মামলা দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন মা চন্দ্রা ভানু। প্রতারনা করে জমি লিখে নেয়া ও নির্যাতন সইতে না পেরে মা চন্দ্রা ভানু রবিবার ছেলে জসিম মোল্লার বিরুদ্ধে আমতলী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগ দেয়ার পরে মাকে ছেলে জসিম পুড়িয়ে মারার হুমকি দিয়েছে। ছেলের ভয়ে মা প্রতিবন্ধি মেয়ে নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।
বৃদ্ধা মা চন্দ্রা ভানু বলেন, আমার ছোট ছেলে জসিম মোল্লা বাড়ী করবে বলে আমার কাছে ২ শতাংশ জমি দাবী করেন। আমি সরল মনে ২ শতাংশ জমি দিতে রাজি হই। কিন্তু আমার সরলতার সুযোগে জসিম আমার সাথে প্রতারনা করে ২২ শতাংশ জমি লিখে নিয়েছে। তিনি আরো বলেন, জমি লিখে নেয়ার পর থেকে জসিম আমার খোজ খবর নেয় না এবং খারাপ আচরণ করে। গত রবিবার আমি জানতে পারি আমার সমুদয় জমি লিখে নিয়েছেন। এ বিষয় জসিমকে জিজ্ঞেস করলে আমাকে মারধর করেছে। তাই জমি লিখে নেয়া ও নির্যাতন সইতে না পেরে আমি থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। অভিযোগ দেয়ার পরে জসিম আমাকে পুড়িয়ে মারার হুমকি দিচ্ছে। ওর ভয়ে আমি প্রতিবন্ধি মেয়ে নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছি।
আমি এ ঘটনার বিচার চাই।
ছেলে জসিম উদ্দিন মোল্লা মাকে মারধরের কথা অস্বীকার করে বলেন, মা-ই আমাকে জমি লিখে দিয়েছেন।
আমতলী থানার ওসি মোঃ শাহ আলম হাওলাদার বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email