সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের মানববন্ধন

রংপুর ব্যুরো

প্রকাশিত: ৯:১২ অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০২১ | আপডেট: ৯:১২:অপরাহ্ণ, মে ১৯, ২০২১

এন.আই.মিলন, দিনাজপুর প্রতিনিধি –

প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে এবং তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়ন (জেইউডি) (রেজিঃ নং রাজ ৫৭৯/৮৬) মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেছে।
বুধবার ১৯ মে শহরের প্রাণ কেন্দ্র মর্ডাণ মোড়ে সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে ১২ টা পর্যন্ত দেড়ঘন্টা ব্যাপী এই মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়।

মানববন্ধনে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন(বিএফইউজে) সাবেক সহ-সভাপতি, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আজকের দেশবার্তার সম্পাদক চিত্তঘোষ বলেন, প্রশাসনের কর্মকর্তারা ভূলে গেছে তারা জনগনের কর্মচারি। তারা জনগনকে সেবা না দিয়ে নির্যাতন করছে। খারাপ ব্যবহার করছে। প্রশাসনে থাকা বিসিএস ক্যাডাররা সাংবাদিকদের মানুষ মনে করছেনা। তারা অনিময়, দূর্নীতি ও ঘুষ খেয়ে রাতা রাতি আঙ্গুল ফুলে কলা গাছে পরিনত হচ্ছে, সম্পদের পাহাড় গড়ছে। তাদের অনিময়, দূর্নীতি ও ঘুষের খবর তুলে ধরলে সাংবাদিকদের হেনস্তা করছে। মামলা দিচ্ছে, জেলে পুরছে। দেশের রাজনীতিবিদ, মন্ত্রী এমপিদের নিয়ে কটুত্তি করছে। দম্ভ করে বলছে রাজনীতিবিদরা নয়,আমরা দেশ চালাই। জেলা পর্যায়ে চাকুরি করতে এসে সম্পদের পাহাড় গড়ে চলে যাচ্ছে। আর এসব নিয়ে সংবাদ করলে সাংবাদিকদের নির্যাতন, হেনস্তা, হামালা মামলা করে জেলে পুরে দেয়া হচ্ছে। রোজিনা ইসলাম একজন সিনিয়র অনুসন্ধ্যানিকুলক সাংবাদিক। তার কলম চলে রাঘব বয়ালদের বিরুদ্ধে। স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় এ সময়ের সবচেয়ে আলোচিত/সমালচিত মন্ত্রনালয়। সেই মন্ত্রনালয়ের অনিয়ম নিয়ে একাধীক সংবাদ প্রকাশ করায় তাকে জেলে পাঠানো হয়েছে। আমরা তার নিঃশর্ত মুক্তি চাই। অন্যথায় দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের ব্যানারে আবারও দূর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ ওয়াহেদুল আলম আটিষ্ট তাঁর সমাপনি বক্তব্যে বলেন.সিনিয়র সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও তার বিরুদ্ধে করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের চেয়ে এবং তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে সারাদেশের সাংবাদিক সমাজ মাঠে নেমেছে। তারই ধারাবাহিকতায় দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়ন (জেইউডি) মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছে। আজকের এই মানববন্ধন থেকে জানতে চাই করোনাকালীন সময়ে স্বাস্থ্য বিভাগ কি কি কেলেংকারি করেছে। কীট, মাস্ক ও পিপিই নিয়ে দুর্নীতি করা হয়েছে। স্বাস্থ্য বিভাগের মহা পরিচালক আপনিও এর সঙ্গে জড়িত আছেন। আমরা জানতে চাই স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ে কি ঘটছে। আমরা জননেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র কাছে আবেদন করব আপনি সাংবাদিক বান্ধব প্রধানমন্ত্রী। আপনি আমাদের নেতা, আপনি আমাদের জননী, আপনার কাছে আমাদের আবেদন, আমরা সাংবাদিকরা আপনার প্রনোদনা চাইনা, আমরা সম্মান চাই, আমরা বকশিস চাইনা আমরা আমাদের প্রাপ্য বেতন চাই। সাংবাদিকদের যে ভাবে হেনস্তা করা হচ্ছে, সাংবাদিকদের নির্যাতন করা হচ্ছে এ ব্যাপারে আমরা আপনার বিবৃতি চাই। স্বাস্থ্যমন্ত্রী একেক সময় একেক কথা বলছেন। আমরা জানি এই স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাতা রাতি করোনা হাসাপাতালও গায়েব করে ফেলেছেন। আজকের কালের কন্ঠে দেখলাম ৩৪৩ কোটি টাকার কেনা কাটা করা হয়েছে অনিয়ম করে। আরও ৭ শ কোটি টাকার কেনা কাটার প্রস্তুতি চলছে।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি শুধু প্রধানমন্ত্রী নন, জাতির জনকের সুযোগ্য কন্যাও বটে। আপনার প্রতি আমাদের দাবী এই দুর্নীতিবাজদের খুজে বের করে জনগনের সামনে তুলে ধরুণ। জনগনের সামনে বিচার করুন। যে ভাবে আপনি ক্যাসিনোর,মানবতাবিরোধীদের ও লুটেরাদের বিচার করেছেন, সেভাবে আপনি আপনার প্রশাসনে ঘুপটি মেরে থাকা দূর্নীতিবাজদের খুঁজে বের করে বিচার করুন। আপনি আমাদের, আমরা আপনার। আমরা রাজ পথে দাঁড়িয়ে আন্দোলন করতে চাইনা। কিন্তু একটি শক্তি আমাদেরকে বাধ্য করছে প্রশাসনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে। এই শক্তিকে চিহিৃত করুর। এই শক্তিকে আপনার প্রশাসন থেকে বের করে দিন। জনগনের কাঠগড়ায় দাড় করুন।

গতকাল একটি নিউজে দেখেছি নোয়াখালির সংবাদের সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার মানহানীর মামলা হয়েছে। তার অপরাধ দূর্নীতির বিরুদ্ধে সংবাদ করেছেন। বাংলাদেশের সাংবাদিক সমাজ আজ ঐক্যবদ্ধ । ঐক্যই আমাদের শক্তি। দূর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে আমরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে লিখে যাব। বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের নেতৃত্বে আগামী দিনে দূর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় যে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে তা আমরা মানিনা, আমরা চাই সকল মন্ত্রনালয়সহ সকল মহলকে নিয়ে একটি গ্রহণযোগ্য কমিটি গঠন করা হউক। কারণ যে কমিটি ঘটন করা হয়েছে তারা এই ঘটনার জড়িতদের সহকর্মী। এদের দিয়ে নিরপেক্ষ তদন্ত সম্ভব নয়। আমরা রোজিনা ইসলামের নিঃশর্ত মুতি চাই।

সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক শাহীন হোসেনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পাটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক বদিউজ্জামান বাদল, বাসদের সংগঠক কিবরিয়া হোসেন,দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কালের কন্ঠ ও জাগোনিউজ টোয়েন্টিফরের দিনাজপুর প্রতিনিধি ও দৈনিক পত্রালাপের বার্তা সম্পাদক এমদাদুল হক মিলন, প্রবীন সাংবাদিক আজকের প্রতিভার বার্তা সম্পাদক আব্দুর রহমান, আজকের দেশ বার্তার বার্তা সম্পাদক হামিদুল হক টিপু, চ্যানেল ২৪ ও সমকালের দিনাজপুর প্রতিনিধি বিপুল সরকার সানি, প্রথম আলোর দিনাজপুর প্রতিনিধি রাজিউল ইসলাম রাজু, মাছরাঙ্গা টেলিভিশনের দিনাজপুর প্রতিনিধি ও সাংবাদিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ রেজাউল করিম রঞ্জু, দীপ্ত টেলিভিশন ও মানব কন্ঠের দিনাজপুর প্রতিনিধি সুলতান মাহমুদ, দৈনিক দিনবদলের সম্পাদক রেজাইল করিম, দেশরুপান্তর ও নিউজ বাংলার দিনাজপুর প্রতিনিধি ও জনমতের ষ্টাফ রিপোর্টার মোঃ কুরবান আলী, আজকের পত্রিকার দিনাজপুর প্রতিনিধি আনিসুল হক জুয়েল, সাংবাদিক ইউনিয়নের দপ্তর সম্পাদক লিটন হোসেন আকাশ, আলোকিত দিনাজপুরের ষ্টাফ রিপোর্টার অরুন রায়, দৈনিক তিস্তার ষ্টাফ রিপোর্টার ইমরুল কায়েস রুপম প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email