আসল না নকল মোবাইল বুঝবেন যেভাবে

প্রকাশিত: ১১:৪৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২, ২০২১ | আপডেট: ১১:৪৫:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২, ২০২১

ক্লোন বা চুরি করা হ্যান্ডসেটের দিন শেষ হতে যাচ্ছে। যেকোনও ফোন বাজার থেকে কেনার সময় ফোনটা আসল বা নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি নিবন্ধিত কি না, তা যাচাই করে কিনতে পারবেন।

এখন বাজারে অবৈধ মোবাইল যত্রতত্র পাওয়া যা’চ্ছে। তাই এ নিয়ে নতুন মোবাইল ক্রেতারা চিন্তিত। অনেকসময়ই স্মার্টফোন কেনার পর দেখা যায় যে জিনিসটি আসল নয়। কষ্টের টাকায় কেনা স্মার্টফোনটি যদি নকল বের হয় তবে সেটা মোটেও সুখকর বিষয় হবার কথা নয়।

এজন্য চালু হতে যাচ্ছে ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেনটিটি রেজিস্টার (এনইআইআর)। ফলে অবৈধ হ্যান্ডসেট দিয়ে দেশের মোবাইল নে’টওয়ার্কে আর যোগাযোগ করা যাবে না।
এনইআইআর চালুর পরে এসব মোবাইল একেবারেই কোনো মোবাইল ফোন অ’পারেটরের সিম চালু করা না। ফোন অবৈধ বা নকল কি না তা দেখেতে বিটিআরসি সঠিক আইএমইআই যাচাই পদ্ধতি রয়েছে।

যে কেউ ম্যাসেজে KYD টাইপ করে স্পেস দিয়ে হ্যা’ন্ডসেটের ১৫ ডিজিটের আইএমইআই নম্বর দিয়ে সেটি ১৬০০২ নম্বরে পাঠালে ফিরতি এসএমএসে আইএমইআই নম্বরটি বিটিআরসির ডাটাবেজে সংরক্ষিত রয়েছে কি না তা জানতে পারবেন।

বিটিআরসির ডাটাবেজে আ’ইএমইআই নম্বর থাকলে বুঝতে হবে হ্যান্ডসেটটি বৈধ। আইএমইআই ন’ম্বর নতুন হ্যান্ডসেটের মোড়কেই দেখা যাবে।

সে ক্ষেত্রে * # /, . ইত্যাদি বিশেষ চিহ্ন বাদে শুধু ১৫টি নম্বর নিতে হবে বি’টিআরসিতে এসএমএসের জন্য।

ব্যবহার করা হ্যান্ডসেটে * # ০ ৬ # ডা’য়াল করেই জেনে নেয়া যায় মোবাইল ফোনে ব্যবহৃত ১৫ ডিজিটের আইএমইআই নম্বর। তাই অবৈধ ফোন বিক্রির কাজটি আর করা যাবে না। গ্রাহকরা পাবেন আসল ফোন।

সূত্র: টেক নি’উনস।

Print Friendly, PDF & Email