মাদারীপুরে র‍্যাবের হাতে লিবিয়ায় মানব পাচার চক্রের সক্রিয় সদেস্য গ্রেপ্তার

নাজমুল হক নাজমুল হক

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৭:০৩ অপরাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০ | আপডেট: ৭:০৩:অপরাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০

সোহান খানঃ

গত ২৮ মে ২০২০ইং তারিখে লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপলির দক্ষিণ শহর মিজদায় আন্তর্জাতিক মানব পাচার চক্র অভিবাসন প্রত্যাশিদেরকে অপহরণ করে মুক্তিপণ না পাওয়ায় ২৬ জন বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে নির্মমভাবে গুলি করে হত্যা করে এবং ১১ জন বাংলাদেশিকে গুরুতর আহত করে। বিষয়টি র‌্যাব-৮ এর নজরে আসলে র‌্যাব-৮ এর অধীনে ১১টি জেলার জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সাথে সংশ্লিষ্ট মানব পাচারকারীদের তথ্য সংগ্রহ করে দ্রুত গ্রেফতারের লক্ষ্যে অভিযান পরিচালনা করে আসছে।
র‍্যাবের নিরলস চেষ্টায় বেশ কয়েকজন পাচারকারী গ্রেপ্তারও হয়েছে ।

মঙ্গলবার বিকেলে র‍্যাব-৮ প্রেস রিলিজের মাধ্যমে জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৮ এর একটি চৌকষ দল তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ২৯ জুন ২০২০ তারিখ রাত্র ২৩.৩০ ঘটিকার সময় মাদারীপুর জেলার রাজৈর থানার নূরপূর গ্রাম এলাকা হতে রবিউল মিয়া ওরফে রবি(৪০) নামে একজনকে গ্রেফতার করে।
রবি মাদারীপুর জেলার রাজৈর থানার নূরপূর গ্রামের রতন মিয়ার ছেলে।

আরো জানা যায়, গ্রেফতারকৃত আসামী র‍্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে সে উক্ত মানব চক্রের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করে। আসামী বাংলাদেশে অবস্থান করে বিভিন্ন যুবককে টার্গেট করা থেকে শুরু করে তাদের পরিবারকে প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ সংগ্রহের কাজ করে এবং লিবিয়ায় অবস্থানরত তার ছেলে সজীবের সাথে যোগসাজশে অবৈধ পন্থায় লিবিয়ায় বাংলাদেশ হতে মানব পাচার করত। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে ডিএমপি, ঢাকার পল্টন মডেল থানার মামলা নং-০৪, তারিখঃ ০৫/০৬/২০২০ খ্রিঃ, ধারাঃ মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন, ২০১২ এর ৭/৮/১০ তৎসহ ৩০২/৩২৬/৩৪ দঃবিঃ এবং ডিএমপি, ঢাকা বনানী থানার মামলা নং-০২, তারিখঃ ০৬/০৬/২০, ধারাঃ মানব পাচার ও প্রতিরোধ দমন আইন, ২০১২ এর ৬/৭/৮/১০ তৎসহ ৩০২/৩২৬/৩৪ আইনে মামলা রেয়ছে। আটককৃত আসামীকে ডিএমপি, ঢাকার পল্টন মডেল থানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

জিএম/হক