আমতলীতে ওয়ারিশি সম্পত্ত্বি ভোগ দখল করতে চাওয়ায় হত্যা মামলার আসামী করার চেষ্টার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন।

আল নোমান আল নোমান

বরগুনা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৮:০১ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ | আপডেট: ৮:০১:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯

আমতলীতে ওয়ারিশি সম্পত্ত্বি ভোগ দখল করতে চাওয়ায় হত্যা মামলার আসামী করার চেষ্টার বিরুদ্ধে শনিবার সকালে আমতলী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলার চাওড়া ইউপির তালুকদার বাজার এলাকার মস্তফা সিকদার। মস্তফা সিকদারের লিখিত বক্তব্যে জানা যায় , উপজেলা কুকুয়া ইউপির কৃষ্ণনগর গ্রামে মৃত ছয়জুদ্দিন মোল্লার মেয়ে মস্তফা সিকদারের মাতা আলেয়া বেগম পৈত্রিক সূত্রে ও অন্যান্য ওয়ারিশরা ৫ একর ৬০ শতাংশ জমির মালিক। উক্ত জমি আলেয়া বেগমের ছেলেরা ভোগদখল করিতে চাইলে আলেয়া বেগমের ফুফাতো ভাই কাশেম হাওলাদারের পুত্র মহসীন আলম খোকা ও আবুল হাসেম হাওলাদার বাধা দেয়। তখন আলেয়া বেগমের পুত্র মস্তফা সিকদার গংরা আইনগত ভাবে জমি ভোগ দখলের জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের স্বরনাপন্ন হন।

ইউপি চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন মাসুম তালুকদার মহসীন আলম খোকা ও আবুল হাসেম কে কাগজপত্রসহ ইউনিয়ন পরিষদে আসার জন্য নোটিশ প্রদান করেন। নোটিশ পেয়ে হাজির হয়ে কোন প্রকার কাগজ পত্রাদি,দলিল-দস্তাবেসনা দেখাতেপারে নাই। এরপর মস্তফা সিকদার গংরা আমতলী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান মহসীন আলম খোকা ও তার চাচাকে নোটিশ প্রদান করেন। কিন্তু তারা উপজেলা চেয়ারম্যানের নোটিশ পেয়েও হাজির হননি।

মস্তফা সিকদারের লিখিত বক্তেব্য আরো জানা যায় ২৯-১১-২০১৭ ইং তারিখ মহসিন আলম খোকার পিতা কাশেম হাওলাদারকে দুস্কৃতকারীরা কুপিয়ে আহত করে। এর কিছু দিন পরে তিনি ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারাযান। এ ঘটনায় ০৫/০১/২০১৮ খ্রীষ্টাব্দ তারিখ আবুল কাশেম হাওলাদার এর স্ত্রী তাছলিমা বেগম বাদী হয়ে আমতলী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলা আমতলী থানা ও সিআইডি পুলিশ তদন্তকরে অপরাধীদের দোষীসাব্যস্ত করে আদালতে চার্যসিট প্রদানকরেন। উক্ত মামলা বর্তমানে বিচারধীন আছে।

উপরান্ত কাশেম হাওলাদার এ পুত্র মহসীন আলম খোকা ও হাশেম হাওলাদার ঐ বিচারধীন মামলায় উক্ত ৫ একর ৬০ শতাংশ জমির ওয়ারিশ, দুলাল হাওলাদার, নেছারউদ্দিন মোল্লা, লোকমান সিকদার, মস্তফা সিকদার, রিপনসিকদারকে অন্তর্ভুক্ত করারজন্য আমতলী কোর্টে আবেদন করেছেন।

বিজ্ঞ আদালত মহসীন আলম খোকার আবেদন পত্রটি আগমী ০৩/১০/২০১৯ ইংতারিখ শুনানীর জন্য ধার্য্য করেছেন। মস্তফা সিকদার আরো জানান, এই জমির ওয়ারিশরা অসহায় দারিদ্র পীড়িত মানুষ। তাদের প্রাপ্ত জমি ভোগ দখল করতে চাওয়ায় কাশেম হাওলাদার হত্যা মামলার আসামী করার জন্য মহসীন আলম খোকা ষড়যন্ত্র মূলক বিজ্ঞ আদালতে এ আবেদন করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে মস্তফা সিকদারের সাথে উপস্থিত ছিলেন চাওড়া ইউপির সাবেক সদস্য মো. আবুল হোসেন। এ ব্যাপারে জানার জন্য মহসিন আলম খোকার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ও যাহাতে তাদের প্রাপ্ত জমি ওয়ারিশরা ভোগ দখল করতে পাারে এবং মহসীন আলম খোকার ষড়যন্ত্র থেকে রক্ষা পেতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য প্রশাসনের উচ্চ মহলসহ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।