মাদারীপুরে ফের লাশ, হত্যা নাকি আত্মহত্যা? পরিবারে দাবি হত্যা

নাজমুল হক নাজমুল হক

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১২:৩৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৫, ২০১৯ | আপডেট: ১২:৩৪:অপরাহ্ণ, মার্চ ২৫, ২০১৯

নাজমুল হক, মাদারীপুর
01772327799

মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের এক নেতার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম লিমন মজুমদার। তিনি মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি।

সোমবার সকালে পৌর শহরের আমিরাবাদ এলাকার লিয়াকত আলীর নিমার্ণাধীন ভবনের দোতলা থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

মাদারীপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) সিরাজুল ইসলাম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। লিমনের পরিবার অভিযোগ দিলেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

লিমনের পরিবারের দাবি, পরিকল্পিতভাবে লিমনকে হত্যা করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে আমিরাবাদ এলাকার মিলন সিনেমা হলের পিছনে লিয়াকত আলীর নির্মাণাধীন ভবনের দোতলায় লিমন মজুমদারের গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় মরদেহ দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে মাদারীপুর মর্গে পাঠায়। এসময় লিমনের গলায় গামছা পেঁচানো থাকলেও দু’পা মাটির সাথে লেগে ছিল। এতে তার পরিবার দাবি করছেন, পূর্ব পরিকল্পিতভাবে কেউ হত্যা করে রেখে গেছেন।

লিমন মজুমদার সবুজবাগ এলাকার বাবুল মজুমদারের ছেলে। তিনি ছাত্রলীগের সহ-সভাপতিসহ নানা সংগঠনের সাথে যুক্ত ছিলেন। তার এই রহস্যজনক মৃত্যতে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

লিমনের বাবা বাবুল মজুমদার বলেন, কিছুদিন ধরে লিমনের সাথে পরিবারের একটু ঝামেলা হচ্ছিল। এই কারণে মাঝে মাঝেই লিমন বাড়িতে থাকতো না। কেউ পরিকল্পিতভাবে লিমনকে হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখে গেছে। এটা হত্যা, আত্মহত্যা না। আমি আইনগত ব্যবস্থা নেবো।

[sharethis-inline-buttons]