দুই কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক, শিক্ষিকা কারাগারে

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৬:৩১ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৩১:অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০১৯

একজন সমকামী আর্ট শিক্ষিকা যিনি দুই কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করেছে বলে স্বীকার করেছে। এই যৌন হয়রানির অপরাধে তার সর্বোচ্চ ২০ বছর জেল হতে পারে বলে জানা গেছে। দ্য ওয়েস্ট অস্ট্রেলিয়ান নিউজ এক রিপোর্টে জানায়।

এই মহিলা ফটোগ্রাফি এবং গ্রাফিক্স ডিজাইন কর্মশালার জন্য আমন্ত্রণ করে তার শিক্ষার্থীদের সমুদ্র সৈকত ভ্রমণে নিয়ে যেতেন এবং তাদের সঙ্গে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হতেন। তিনি এই অভিযোগ স্বীকার করেন যে, তিনি ১৬ বছরের থেকে কম বয়সী দুই শিক্ষার্থীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক তৈরি করেন। তার এই অপরাধের জন্য শাস্তিস্বরূপ ২০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে বলে জানা যায়।

গতবছর ২৮ বছর বয়সী এক মহিলাকে পুলিশ গ্রেফতার করেন। তার অপরাধ হচ্ছে সে ২ বছরেরও বেশি সময় ধরে অস্ট্রেলিয়ার পার্থ স্কুলের দুই শিক্ষার্থীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করে আসছিলো।

এক কিশোরী যখন ওই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির দাবি করেন, তখন তাকে নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তদন্ত করা শুরু করে। তদন্ত শেষে ৪৮টি যৌন নির্যাতনের ঘটনার সঙ্গে তিনি জড়িত ছিলেন বলে প্রমাণিত হয়। এদের মধ্যে ১৩ থেকে ১৬ বছর বয়সী কিশোরীও তার যৌন নির্যাতনের শিকার হয়।

তিনি প্রথম কিশোরীর উপর বিভিন্ন সময় মোট ১৯ বার যৌন আক্রমণ করেছিলেন বলে স্বীকার করেন। অস্ট্রেলিয়ার রকিংহাম আদালতের শুনানিতে জানানো হয়, ২০১৭ সালে ওই শিক্ষিকা অন্য এক কিশোরীর উপর ১৪ বার যৌন আক্রমণ করেন।

উল্লেখ্য, ওই মহিলা যে কিনা ২০১৩ সাল থেকে শিক্ষকতা করছেন তাকে ২০১৮ সালে গ্রেফতার করা হয় এবং শিক্ষা বিভাগ তাকে বরখাস্ত করা হয়। অস্ট্রেলিয়ার আদালত এ বছরের মে মাসে তার রায় ঘোষণা করবে বলে জানা গেছে। যদিও তার আইনজীবী রায় দেয়ার পূর্বে আদালতকে তার মানসিক ভারসাম্যহীনতার কথা বিবেচনা করে মনোরোগ বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেয়ার অনুরোধ করেছেন।

[sharethis-inline-buttons]