ডাকসু: দায়িত্ব গ্রহণ করেননি তানহা ও মীম

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:২৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৩০:অপরাহ্ণ, মার্চ ২৩, ২০১৯

দীর্ঘ তিন দশকের অচলাবস্থার অবসান ঘটিয়ে প্রথম কার্যনির্বাহী পরিষদের সভার মধ্য দিয়ে সচল হয়েছে দেশের দ্বিতীয় পার্লামেন্ট খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)।

ডাকসুতে ২৫ টি পদ ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৮টি হল সংসদে (প্রত্যেকটিতে ১৩ জন) নির্বাচিত হয়েছেন ২৩৪ জন। এর মধ্যে আজ দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন ২৩২ জন। বাকি দুজন তাদের দায়িত্ব বুঝে নেননি।

শনিবার বেলা ১১টায় ডাকসু ভবনে অনুষ্ঠিত কার্যনির্বাহী পরিষদের এক সভা শেষে দায়িত্ব গ্রহণ করেন ডাকসুর সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর, সাধারণ সম্পাদক (জিএস) গোলাম রাব্বানী, সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) সাদ্দাম হোসেনসহ অন্য সম্পাদক ও সদস্যরা।

একই সময়ে হলগুলোতে দায়িত্ব গ্রহণ করেন স্ব স্ব হল সংসদে নির্বাচিতরা। তবে, হল সংসদে নির্বাচিত দুইজন দায়িত্ব গ্রহণ করেননি। এরা হলেন, কবি সুফিয়া কামাল হল সংসদে সদস্য পদে বিজয়ী লামইয়া তানজিন তানহা ও বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হল সংসদে সদস্য পদে নির্বাচিত ফারজানা আক্তার মীম। তারা দুজনই প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্যের প্যানেল থেকে নির্বাচন করেছেন।

দায়িত্ব না নেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে লামইয়া তানজিন তানহা বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, এর আগেও বলেছি নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে। যদিও আমার হলে কারচুপি হয়নি। তবুও অন্য হলে তো হয়েছে। আমার আদর্শের জায়গায় আমি অনঢ়। তাই দায়িত্ব গ্রহণ করিনি।

তিনি বাম জোটের ডাকসুর পুনরায় নির্বাচনের দাবিকে সমর্থন করে বলেন, যেহেতু আমি প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্যের প্যানেল থেকে নির্বাচন করেছি, আমার প্যানেলের নেতারা এখন পুনরায় নির্বাচন দেয়ার দাবিতে আন্দোলন করছেন, সে জায়গায় দাঁড়িয়ে আমার দায়িত্ব নেয়ার প্রশ্নই আসে না।

এ বিষয়ে ফারজানা আক্তার মীমের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এর আগে গত ১৬ মার্চ ডাকসুর নেতৃবৃন্দ প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে গণভবনে গেলেও সেখানে যাননি তানহা ও মীম।

  • বাংলাদেশ জার্নাল