মানিকগঞ্জে নিখোঁজের ৩ দিন পর ইতালী প্রবাসীর শিশুপুত্রের লাশ উদ্ধার

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৬:৪৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৪৯:অপরাহ্ণ, মার্চ ২১, ২০১৯

মানিকগঞ্জে নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর বৃহস্পতিবার সকালে সুজয় দেবনাথের মরদেহ বাড়ির পাশের পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার ভারাড়িয়া ইউনিয়নের কাকুরিয়া গ্রামের ইতালী প্রবাসী সঞ্জয় দেবনাথের পাঁচ বছর বয়সী ছেলে সুজয় দেবনাথ সোমবার দুপুর নিজ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়।

সুজয়ের মা বাসন্তী দেবনাথ বলেন, গত সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ছেলে সুজয়কে বাসায় রেখে সে পুকুরে গোসল করতে যায়। সেখান থেকে ফিরে আার সুজয়কে বাড়িতে পায়নি। গ্রামসহ আশেপাশের এলাকায় খোঁজাখুজি করে না পেয়ে মানিকগঞ্জ সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন।

তিনদিন পর পুকুরে শিশু সুজয়ের মরদেহ পাওয়ার পর মা বাসন্তি দেবনাথ এবং গ্রামবাসী ওই শিশুকে হত্যা করে তার লাশ পুকুরে ফেলে দেয়ার অভিযোগ তুলে সুজয়েরে বড় চাচা বড় চাচা রঞ্জিত দেবনাথ এবং তার পরিবারের বিরুদ্ধে।

এই ঘটনায় এলাকাবাসী অভিযুক্ত রঞ্জিত দেবনাথের বাড়ি ভাংচুরসহ তাতে এবং তার পরিবারের সদস্যদের মারধর করে। খবর পেয়ে মানিকগঞ্জ সদর থানা থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং শিশুর লাশ উদ্ধার করে।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) হানিফ সরকার বলেন, নিহত শিশুর মা বাসন্তী দেবনাথ এবং এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে রঞ্জিত দেবনাথ, তার স্ত্রী ও দুই সসন্তানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে।

এর আগে, ছেলেটিকে সুস্থ খুজে পেতে প্রশাসন ও মিডিয়ার সহযোগিতা কামনা করেছেন অপহৃত শিশুর মা বাসন্তী দেবনাথসহ পরিবারের সদস্যরা।
শিশুটির পিতা সঞ্জয় দেবনাথ পাঁচ বছর ধরে ইতালী থাকে। সে দুই মাস আগে দেশে এসে ২০দিন থেকে আবার ইতালী চলে গেছে।