Dhaka ০৫:৫৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভোটার আইডি কার্ড চেক করার নিয়ম 2024 (নতুন সিস্টেম)

  • Reporter Name
  • Update Time : ১১:৫২:৪৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ১৩০ Time View

বাংলাদেশে, আমরা সবাই জানি যে একটি স্মার্ট কার্ড বা জাতীয় পরিচয়পত্র প্রতিটি নাগরিকের জন্য একটি প্রয়োজনীয় জিনিস। আমরা প্রায়শই জাতীয় পরিচয়পত্রকে এনআইডি কার্ড হিসাবে উল্লেখ করি। আজকের নিবন্ধে, আমি আপনার ভোটার আইডি কার্ড চেক বা ডাউনলোড করার নিয়মগুলি আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

সুতরাং, আপনি যদি এই নিবন্ধটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়েন, তাহলে আপনি সহজেই শিখতে পারবেন কীভাবে অনলাইনে আপনার NID কার্ড ডাউনলোড করবেন। আপনি যদি এই বিষয় সম্পর্কে জানতে চান তবে এই নিবন্ধটি আপনার জন্য।

প্রধানত, নতুন ভোটারদের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড করার প্রক্রিয়াটি বিদ্যমান ভোটারদের মতোই। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে ভোটার আইডি কার্ড চেক করবেন।

জাতীয় পরিচয়পত্র অনুসন্ধান | ভোটার আইডি চেক করুন

আমাদের জাতীয় পরিচয়পত্র অনুসন্ধান করার জন্য বিভিন্ন কারণ রয়েছে। আজকের নিবন্ধে, আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে আপনি আপনার স্মার্ট কার্ড নম্বর/এনআইডি নম্বর বা আপনার স্লিপ নম্বর ব্যবহার করে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র পুনরুদ্ধার করতে পারেন।

নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা নিশ্চিত করার জন্য, অনুমতি ছাড়া কেউ এনআইডি কার্ডের বিবরণ অ্যাক্সেস করতে পারবে না। যাইহোক, অনুমতি দেওয়া হলে, NID নম্বর, জন্ম তারিখ এবং মুখ যাচাইকরণ প্রদান করে যাচাই করা যেতে পারে।

ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য, বর্তমানে, ভোটারের তথ্যের অনলাইন যাচাইকরণ অনুপলব্ধ। সুতরাং, আপনি যদি আপনার এনআইডি আইডি অনুসন্ধান করতে চান তবে আপনাকে ফেস ভেরিফিকেশন করতে হবে। এই প্রক্রিয়া সাধারণত একটি অ্যাপ্লিকেশন মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়.

উপরন্তু, আপনি নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পরে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, মোবাইল নম্বর এবং জন্ম তারিখ অনলাইনে পরীক্ষা করতে পারেন।

জাতীয় পরিচয়পত্র অনুসন্ধানের পাশাপাশি, সরকার প্রদত্ত অন্যান্য অনলাইন পরিষেবাগুলিও অনলাইনে অ্যাক্সেস করা যেতে পারে। পরিষেবাগুলি যেমন একটি নতুন এনআইডি কার্ডের জন্য আবেদন করা, তথ্য পরিবর্তন করা ইত্যাদি, অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অ্যাক্সেস এবং প্রক্রিয়া করা যেতে পারে।

বাংলাদেশের অনেক প্রতিষ্ঠানেরই অন্য ব্যক্তির জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করার ক্ষমতা রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা এবং ব্যাংকের কর্মচারীরা। এই সংস্থাগুলি সরকার কর্তৃক প্রদত্ত নির্দিষ্ট সফ্টওয়্যার ব্যবহার করে তাদের কাজগুলি সম্পাদন করে।

আপনি যদি একজন নতুন ভোটার হন এবং ভোটার আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করেন, তাহলে আপনাকে অবশ্যই আইডি কার্ড পুনরুদ্ধার করতে নিবন্ধন প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করতে হবে। বিশেষ করে, আপনার NID নম্বর সার্ভারে যুক্ত হলে এই প্রক্রিয়াটি কাজ করবে।

এসএমএসের মাধ্যমে NID নম্বর পুনরুদ্ধার করুন

আপনি যদি সম্প্রতি নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করে থাকেন এবং আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর বা স্লিপ নম্বর খুঁজে না পান, চিন্তা করবেন না। আপনি আপনার প্রদত্ত স্লিপ নম্বর ব্যবহার করে SMS এর মাধ্যমে সহজেই আপনার NID নম্বর পুনরুদ্ধার করতে পারেন।

SMS এর মাধ্যমে আপনার NID নম্বর পুনরুদ্ধার করতে:

আপনার ফোনে আপনার মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন অ্যাক্সেস করুন এবং একটি নতুন বার্তা রচনা করার বিকল্পটি নির্বাচন করুন৷

বার্তাটির একটি নির্দিষ্ট বিন্যাস টাইপ করুন: NID [স্পেস] আপনার ফর্ম নম্বর [স্পেস] আপনার জন্ম তারিখ (যেমন, 30-12-2024 বিন্যাস)।

103 নম্বরে বার্তা পাঠান।

বার্তা পাঠানোর পরে, আপনি SMS এর মাধ্যমে আপনার NID নম্বর পাবেন।

এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করে, আপনি SMS পদ্ধতি ব্যবহার করে সহজেই আপনার NID নম্বর পুনরুদ্ধার করতে পারেন।

জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড করার নিয়ম

বাংলাদেশ সরকার নাগরিকদের এনআইডি সুরক্ষার জন্য আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র (NID) ডাউনলোড করার জন্য একটি বিকল্প পদ্ধতি সরবরাহ করেছে। এই পদ্ধতিতে এনআইডি রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে এনআইডির জন্য নিবন্ধন করা জড়িত।

যদি আগে ভাগ করা প্রক্রিয়াটি আপনার NID কার্ড চেক করার জন্য কাজ না করে, তাহলে আপনাকে অবশ্যই এই পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে হবে। যাইহোক, আমাদের বেশিরভাগই আমাদের NID কার্ড চেক করার পূর্ববর্তী পদ্ধতির সাথে পরিচিত।

যদি পূর্ববর্তী পদ্ধতিটি কাজ না করে তবে আপনাকে অবশ্যই একটি অ্যাকাউন্টের জন্য নিবন্ধন করতে হবে। মনে রাখবেন অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশনের জন্য ফেস ভেরিফিকেশন প্রয়োজন।

একটি অ্যাকাউন্টের জন্য নিবন্ধন করতে:

1. অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করার জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে একটা ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।
2. ওয়েবসাইটে “রেজিস্টার” বোতামে ক্লিক করুন৷
3. আপনার NID নম্বর, জন্ম তারিখ এবং প্রদত্ত ক্যাপচা কোড পূরণ করুন। তারপর “জমা দিন” বোতামে ক্লিক করুন।
4. আপনার বর্তমান ঠিকানার বিবরণ চয়ন করুন এবং “পরবর্তী” বোতামে ক্লিক করুন৷
5. একটি মোবাইল নম্বর লিখুন যা ভবিষ্যতে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় হবে এবং “বার্তা পাঠান” এ ক্লিক করুন।
6. ফেসিয়াল রিকগনিশন ব্যবহার করে যাচাইকরণ প্রক্রিয়া অনুসরণ করুন।
7. আপনার অ্যাকাউন্টের জন্য একটি পাসওয়ার্ড সেট করুন এবং এটি আপডেট করুন।
8. প্রয়োজনীয় তথ্য দেখতে আপনার NID অ্যাকাউন্ট ড্যাশবোর্ডে অ্যাক্সেস থাকবে।

আপনার NID কার্ড সুরক্ষিত রাখতে এবং গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলি অনায়াসে সম্পূর্ণ করতে এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন৷
উপসংহার

উপসংহারে, বাংলাদেশে জাতীয় পরিচয়পত্র পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়া অনলাইন যাচাইকরণ এবং এসএমএস পরিষেবা সহ বিভিন্ন পদ্ধতির মাধ্যমে করা যেতে পারে। এই পরিষেবাগুলি ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা নিশ্চিত করে এবং গুরুত্বপূর্ণ নথিগুলিতে সহজে অ্যাক্সেসের অনুমতি দেয়।

Tag :
About Author Information

gm news

মাদারীপুরের শিবচরে বজ্রপাতে ২ জনের মৃত্যু

ভোটার আইডি কার্ড চেক করার নিয়ম 2024 (নতুন সিস্টেম)

Update Time : ১১:৫২:৪৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বাংলাদেশে, আমরা সবাই জানি যে একটি স্মার্ট কার্ড বা জাতীয় পরিচয়পত্র প্রতিটি নাগরিকের জন্য একটি প্রয়োজনীয় জিনিস। আমরা প্রায়শই জাতীয় পরিচয়পত্রকে এনআইডি কার্ড হিসাবে উল্লেখ করি। আজকের নিবন্ধে, আমি আপনার ভোটার আইডি কার্ড চেক বা ডাউনলোড করার নিয়মগুলি আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

সুতরাং, আপনি যদি এই নিবন্ধটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়েন, তাহলে আপনি সহজেই শিখতে পারবেন কীভাবে অনলাইনে আপনার NID কার্ড ডাউনলোড করবেন। আপনি যদি এই বিষয় সম্পর্কে জানতে চান তবে এই নিবন্ধটি আপনার জন্য।

প্রধানত, নতুন ভোটারদের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড করার প্রক্রিয়াটি বিদ্যমান ভোটারদের মতোই। তো চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে ভোটার আইডি কার্ড চেক করবেন।

জাতীয় পরিচয়পত্র অনুসন্ধান | ভোটার আইডি চেক করুন

আমাদের জাতীয় পরিচয়পত্র অনুসন্ধান করার জন্য বিভিন্ন কারণ রয়েছে। আজকের নিবন্ধে, আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে আপনি আপনার স্মার্ট কার্ড নম্বর/এনআইডি নম্বর বা আপনার স্লিপ নম্বর ব্যবহার করে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র পুনরুদ্ধার করতে পারেন।

নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা নিশ্চিত করার জন্য, অনুমতি ছাড়া কেউ এনআইডি কার্ডের বিবরণ অ্যাক্সেস করতে পারবে না। যাইহোক, অনুমতি দেওয়া হলে, NID নম্বর, জন্ম তারিখ এবং মুখ যাচাইকরণ প্রদান করে যাচাই করা যেতে পারে।

ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য, বর্তমানে, ভোটারের তথ্যের অনলাইন যাচাইকরণ অনুপলব্ধ। সুতরাং, আপনি যদি আপনার এনআইডি আইডি অনুসন্ধান করতে চান তবে আপনাকে ফেস ভেরিফিকেশন করতে হবে। এই প্রক্রিয়া সাধারণত একটি অ্যাপ্লিকেশন মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়.

উপরন্তু, আপনি নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পরে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, মোবাইল নম্বর এবং জন্ম তারিখ অনলাইনে পরীক্ষা করতে পারেন।

জাতীয় পরিচয়পত্র অনুসন্ধানের পাশাপাশি, সরকার প্রদত্ত অন্যান্য অনলাইন পরিষেবাগুলিও অনলাইনে অ্যাক্সেস করা যেতে পারে। পরিষেবাগুলি যেমন একটি নতুন এনআইডি কার্ডের জন্য আবেদন করা, তথ্য পরিবর্তন করা ইত্যাদি, অনলাইন প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে অ্যাক্সেস এবং প্রক্রিয়া করা যেতে পারে।

বাংলাদেশের অনেক প্রতিষ্ঠানেরই অন্য ব্যক্তির জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করার ক্ষমতা রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা এবং ব্যাংকের কর্মচারীরা। এই সংস্থাগুলি সরকার কর্তৃক প্রদত্ত নির্দিষ্ট সফ্টওয়্যার ব্যবহার করে তাদের কাজগুলি সম্পাদন করে।

আপনি যদি একজন নতুন ভোটার হন এবং ভোটার আইডি কার্ডের জন্য আবেদন করেন, তাহলে আপনাকে অবশ্যই আইডি কার্ড পুনরুদ্ধার করতে নিবন্ধন প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করতে হবে। বিশেষ করে, আপনার NID নম্বর সার্ভারে যুক্ত হলে এই প্রক্রিয়াটি কাজ করবে।

এসএমএসের মাধ্যমে NID নম্বর পুনরুদ্ধার করুন

আপনি যদি সম্প্রতি নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করে থাকেন এবং আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর বা স্লিপ নম্বর খুঁজে না পান, চিন্তা করবেন না। আপনি আপনার প্রদত্ত স্লিপ নম্বর ব্যবহার করে SMS এর মাধ্যমে সহজেই আপনার NID নম্বর পুনরুদ্ধার করতে পারেন।

SMS এর মাধ্যমে আপনার NID নম্বর পুনরুদ্ধার করতে:

আপনার ফোনে আপনার মেসেজিং অ্যাপ্লিকেশন অ্যাক্সেস করুন এবং একটি নতুন বার্তা রচনা করার বিকল্পটি নির্বাচন করুন৷

বার্তাটির একটি নির্দিষ্ট বিন্যাস টাইপ করুন: NID [স্পেস] আপনার ফর্ম নম্বর [স্পেস] আপনার জন্ম তারিখ (যেমন, 30-12-2024 বিন্যাস)।

103 নম্বরে বার্তা পাঠান।

বার্তা পাঠানোর পরে, আপনি SMS এর মাধ্যমে আপনার NID নম্বর পাবেন।

এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করে, আপনি SMS পদ্ধতি ব্যবহার করে সহজেই আপনার NID নম্বর পুনরুদ্ধার করতে পারেন।

জাতীয় পরিচয়পত্র ডাউনলোড করার নিয়ম

বাংলাদেশ সরকার নাগরিকদের এনআইডি সুরক্ষার জন্য আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র (NID) ডাউনলোড করার জন্য একটি বিকল্প পদ্ধতি সরবরাহ করেছে। এই পদ্ধতিতে এনআইডি রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে এনআইডির জন্য নিবন্ধন করা জড়িত।

যদি আগে ভাগ করা প্রক্রিয়াটি আপনার NID কার্ড চেক করার জন্য কাজ না করে, তাহলে আপনাকে অবশ্যই এই পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে হবে। যাইহোক, আমাদের বেশিরভাগই আমাদের NID কার্ড চেক করার পূর্ববর্তী পদ্ধতির সাথে পরিচিত।

যদি পূর্ববর্তী পদ্ধতিটি কাজ না করে তবে আপনাকে অবশ্যই একটি অ্যাকাউন্টের জন্য নিবন্ধন করতে হবে। মনে রাখবেন অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশনের জন্য ফেস ভেরিফিকেশন প্রয়োজন।

একটি অ্যাকাউন্টের জন্য নিবন্ধন করতে:

1. অ্যাকাউন্ট রেজিস্ট্রেশন করার জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে একটা ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।
2. ওয়েবসাইটে “রেজিস্টার” বোতামে ক্লিক করুন৷
3. আপনার NID নম্বর, জন্ম তারিখ এবং প্রদত্ত ক্যাপচা কোড পূরণ করুন। তারপর “জমা দিন” বোতামে ক্লিক করুন।
4. আপনার বর্তমান ঠিকানার বিবরণ চয়ন করুন এবং “পরবর্তী” বোতামে ক্লিক করুন৷
5. একটি মোবাইল নম্বর লিখুন যা ভবিষ্যতে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় হবে এবং “বার্তা পাঠান” এ ক্লিক করুন।
6. ফেসিয়াল রিকগনিশন ব্যবহার করে যাচাইকরণ প্রক্রিয়া অনুসরণ করুন।
7. আপনার অ্যাকাউন্টের জন্য একটি পাসওয়ার্ড সেট করুন এবং এটি আপডেট করুন।
8. প্রয়োজনীয় তথ্য দেখতে আপনার NID অ্যাকাউন্ট ড্যাশবোর্ডে অ্যাক্সেস থাকবে।

আপনার NID কার্ড সুরক্ষিত রাখতে এবং গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলি অনায়াসে সম্পূর্ণ করতে এই পদক্ষেপগুলি অনুসরণ করুন৷
উপসংহার

উপসংহারে, বাংলাদেশে জাতীয় পরিচয়পত্র পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়া অনলাইন যাচাইকরণ এবং এসএমএস পরিষেবা সহ বিভিন্ন পদ্ধতির মাধ্যমে করা যেতে পারে। এই পরিষেবাগুলি ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা এবং গোপনীয়তা নিশ্চিত করে এবং গুরুত্বপূর্ণ নথিগুলিতে সহজে অ্যাক্সেসের অনুমতি দেয়।