পাতরঘাটা সন্ত্রাসী হামলায় মা-মেয়ে হাসপাতালে

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:৩২ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৩২:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জমি জমা বিরোধকে কেন্দ্র করে মা ও মেয়েকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। আহতকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত শুক্রবার (১১ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় পাথরঘাটা মধ্য কালমেঘা গ্রামের নুরুল ইসলাম খলিফার স্ত্রী সুপিয়া বেগম (৩০) ও তার শাসুরি আকলিমা বেগমকে পিটিয়ে কুপি যখম করেছে প্রতিপক্ষরা ।

আহত সূত্রে জানা গেছে, ঐ এলাকার বাসিন্দা আবুল কালাম শিকদার ও তার ভাইয়ের ছেলে সবুজ শিকদারের সাথে জমিজমা নিয়ে কথার কাটাকাটি করে। এক পর্যায়ে সবুজের পক্ষে সগির হাওলাদার ও তার স্ত্রী নাসিমা বেদম ও তাদের মেয়ে নাসরিন সহ অজ্ঞাত ৩/৪ জনে মিলে আবুল কালামকে মারধর করে। খবর পেয়ে আবুল কালামের বোন আকলিমা ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। এ সময় সন্ত্রাসীরা তাকেও এলোপাথারি পিটায়। আকলিমার ডাকচিৎকার সুনে তার মেয়ে সুপিয়া তাদের রক্ষা করতে ছুটে আসে।

এ সময় সবুজের নেতৃত্বে সগির ধারালো দেশিয় অস্ত্র দা দিয়ে সুফিয়াকে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথারী কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এতে সুফিয়ার মাথায় গুরুতর যখম হয়।  পরে স্থানীয়রা ঘটনা স্থলে ছুটে যায় এবং আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। কর্তব্যরত চিকিৎসক সুফিয়ার অবস্থা আশঙ্কজনক হওয়ায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করে। বর্তমানে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জ লড়ছে সুফিয়া। এ ব্যাপারে স্থানীয় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে আহতের পরিবার জানায়।