পরকীয়ার জেরে শীর্ষ ধনীর মুকুট হারাচ্ছেন বেজোস

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:২৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯ | আপডেট: ৯:২৮:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯

পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি এখন জেফ বেজোস। কিন্তু বিবাহ বিচ্ছেদের জেরে সেই মুকুট এবার হারাতে চলেছেন তিনি। বিচ্ছেদের পর স্ত্রী ও ব্যবসায়ীক পার্টনার মেকাঞ্জির সঙ্গে সম্পদ ভাগাভাগি করে নেবেন অ্যামাজনের এ প্রতিষ্ঠাতা। সবকিছুর পেছনে রয়েছে জেফের পরকীয়া। খবর ডেইলি মেইল।

বিশ্বকে অবাক করে ২৫ বছরের সঙ্গী ম্যাকানজির সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করেছেন পৃথিবীর ধনীতম ব্যক্তি এবং আমাজনের মালিক জেফ বেজোস।

দীর্ঘদিন আলাদা থাকার পর টুইটারে এ ঘোষণা দেন তিনি। আর এ বিয়ে বিচ্ছেদের জন্য জেফ বেজোসকে গুনতে হবে আনুমানিক ৪.২ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি।

সে হিসেবে জেফ বেজোস ও ম্যাকানজির এই বিয়ে বিচ্ছেদই হবে বিশ্বের ইতিহাসে সবচেয়ে দামি বিয়ে বিচ্ছেদ। দু’জনের সাক্ষর করা ওই টুইটে তারা জানিয়েছেন, বিচ্ছেদ হলেও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখবেন তারা।

মার্কিন আদালতের আইন অনুযায়ী, আমাজনের মালিক জেফ বেজোসের মোট সম্পত্তির অর্ধেকটাই দিয়ে দিতে হবে ম্যাকানজিকে। কেননা ওয়াশিংটনের নিয়ম অনুযায়ী, বিবাহিত সম্পর্কে থাকা অবস্থায় কোনো দম্পতি যে পরিমাণ অর্থ উপার্জন করে তার ওপর স্বামী এবং স্ত্রীর দুজনেরই অধিকার রয়েছে।

সে প্রেক্ষিতে গত ২৫ বছরে যে পরিমাণ সম্পত্তি অর্জন করেছেন জেফ ও ম্যাকানজি তার অর্ধেক করলে এ সম্পত্তির পরিমাণ গিয়ে দাঁড়ায় ৪.২ লাখ কোটি টাকা। পাশাপাশি তাদের ওয়াশিংটনের বিলাশবহুল বাড়িটিও যৌথ সম্পত্তি হিসেবে নথিভূক্ত হবে।

১৯৯৩ সালে বিয়ে করেছিলেন ম্যাকানজি-বেজস। এর এক বছর পরেই বেজস অ্যামাজন প্রতিষ্ঠা করেন। তখন থেকেই কোম্পানিটি বিশ্বের সেরা ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান হয়ে ওঠে। ২০১৭ সালে পৃথিবীর ধনীতম ব্যক্তি হয়েছিলেন জেফ।

ডেইলি মেইল জানায়, ৮ মাস ধরে গোপনে লরেন স্যাঞ্চেস নামে এক টিভি উপস্থাপিকার সঙ্গে প্রেম করছেন জেফ। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনকোয়ার ম্যাগাজিন বিষয়টি ফাঁস করে দেয়ার পর আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বেজোস ও ম্যাকাঞ্জি।

জানা গেছে, জেফ ঠিক করেছেন, সম্পত্তি আধাআধি ভাগ করে নেবেন তাঁরা। জেফের সম্পত্তির পরিমাণ এখন ১৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। কিন্তু ভাগাভাগি হয়ে গেলে তিনি পাবেন ৭০ বিলিয়ন ডলারের কাছাকাছি। ফলে সবচেয়ে ধনী ব্যক্তির তকমা খোয়াতে হবে তাঁকে। আবার পৃথিবীর ধনীতম ব্যক্তি হয়ে যাবেন মাইক্রোসফট প্রধান বিল গেটস।

একইসঙ্গে মার্ক জাকারবার্গ এবং টেসলা প্রধান এলন মাস্ককে পেছনে ফেলে ধনী তালিকায় অবস্থান নিবেন বিশ্বের শীর্ষ নারী ধনী ম্যাকানজি।