দশমিনায় একটি রাস্তা পাঁকা করনের দাবীতে মানব বন্ধন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৩:২৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৮ | আপডেট: ৩:২৮:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৮

ফয়েজ আহমেদ,দশমিনা প্রতিনিধি ॥

পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার সদর ইউনিয়নের ঘয়না ঘাট হইতে নয়াভাঙ্গলী খেয়া ঘাট পর্যন্ত ৫.৭৭ কিলোমিটার রাস্তাটি অত্যান্ত জন গুরুত্বপুর্ন হওয়ায়,রাস্তাটি পাঁকা করনের দাবীতে ি বক্ষোভ সমাবেশ ও মানব বন্ধন কর্মসুচী পালন করেছেন ভুক্তভোগী এলাকাবাসী। কারন এ রাস্তাটির দু’পাশ ঘেষে গড়ে ওঠেছে অসংখ্য ঘর-বাড়ী।

 

এক কথায় একটি ঘন বসতিপুর্ন এলাকা। রয়েছে তিনটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,দুইটি ইবতেদায়ী ও দাখিল মাদ্রাসা একটি নিম্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়। দশমিনা মডেল সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয় ,বেগম আরেফাতুননেছা বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়,দশমিনা ফাজেল মাদ্রাসা,দশমিনা সরকারী আবদুর রসিদ তালুকদার ডিগ্রী কলেজ এবং দশমিনা ডলি আকবর মহীলা কলেজের বহু ছাত্র ছাত্রী অত্যান্ত কষ্ট করে প্রতিদিন বিদ্যালয় আসা যাওয়া করে এ রাস্তায়। তার উপরে সামান্য বৃষ্টি হলেই এক হাটু কাাঁদা জমে যায় রাস্তাটিতে। তাই ছোট ছোট কোমলমতি শিশুদের ¯কুলে যাতায়াত হয়ে পরে দুর্বিসহ।

 

দিন রাত কয়েক হাজার লোকের চলা চল এ রাস্তাটিতে। হোন্ডা,অটোবাইক ও নছিমনে যাতায়াত করতে গিয়ে প্রায়শই দুর্ঘটনায় পরতে হয় যাত্রীদের। এ সময় দশমিনা উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে তাহাদের দুদশার কথা তুলে ধরেন এলাকাবাসী। উক্ত মানব বন্ধনে এলাকার প্রায় কয়েক শত লোক নারী-পুরুষ রাস্তায় নেমে আসেন এবং চলতি অর্থবছরেই যাহাতে রাস্তাটি পাকা করন করা হয় তার জন্য উপজেলা প্রকৌশলীর দৃস্টি আকর্ষন করেন। দশমিনা উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান,আগামী অর্থ বছরে অগ্রাধীকারের ভিত্তিত্বে আমি এ রাস্তাটি করে দেয়ার চেষ্টা করবো।