১০০ স্কুলে নিয়োগ হবে সাড়ে সাত হাজার শিক্ষক

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ১০:১৭:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০১৮

এবারই প্রথম সারাদেশে ১০০টি উপজেলায় টিএস বা ভোকেশনাল স্কুল নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। চাহিদার ভিত্তিতে নতুন কয়েকটি বিষয় চালু করা হবে এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে।বিভিন্ন বিষয়ে ৭৫ জন করে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে প্রতিটি স্কুলে।

রাজস্ব খাতভুক্ত এসব স্কুলে সারাদেশে মোট সাড়ে ৭ শিক্ষক নিয়োগ পাবেন। নতুন প্রতিষ্ঠানগুলোতে পদসৃজনে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে এসব পদে নিয়োগ দেয়া হবে।

জানা গেছে, সারাদেশে ১০০টি উপজেলায় টিএস বা ভোকেশনাল স্কুল নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করার উদ্দেশ্য। প্রতিটি স্কুলে ৮৪০ জন শিক্ষার্থী অধ্যয়নের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রতিটি স্কুলে ৭৫ জন শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

এর ফলে বৃত্তিমূলক শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ সম্প্রসারণের জন্য ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত কারিগরি বিষয় অন্তর্ভুক্তকরণ, এসএসসি (ভোকেশনাল) সার্টিফিকেট কোর্স ও স্বল্পমেয়াদী প্রশিক্ষণ কোর্স পরিচালনার সুযোগ সৃষ্টি হবে।

পাশাপাশি দেশে ও বিদেশে শ্রম বাজারের জন্য চাকরির সুযোগ সৃষ্টির জন্য দক্ষ জনশক্তি তৈরি হবে, জীবিকা নির্বাহের জন্য দরিদ্র জনগোষ্ঠী আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ পাবে এবং স্কুল পর্যায়ে কারিগরি বিষয় ছাড়াও চারটি ট্রেড কোর্স ও স্বল্প মেয়াদী চাহিদা সম্পন্ন প্রশিক্ষণ কোর্স প্রবর্তন করা হবে।

প্রকল্প সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের জানুয়ারি মাসে প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু হলেও প্রকল্প পরিচালক (পিডি) নিয়োগে আট মাস বিলম্ব হওয়ায় প্রায় এক বছর পর জমি অধিগ্রহণ কাজ শুরু করা হয়।

প্রকল্পের আওতায় প্রধান কার্যক্রম হচ্ছে- ১০০টি একাডেমিক প্রশাসনিক ভবন নির্মাণ (প্রতিটি ২২৬৫ বর্গমিটার), দেড়শ একর জমি অধিগ্রহণ, ভূমি উন্নয়ন, মেশিনারি ও যন্ত্রপাতি ক্রয়, আসবাবপত্র ক্রয়, বাউন্ডারি ওয়াল ও অভ্যন্তরীণ রাস্তা নির্মাণসহ আনুষঙ্গিক কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

এ পর্যন্ত ৯৪টি উপজেলায় জমি অধিগ্রহণ কাজ সম্পন্ন করার পর, সেখানে ৫ তলা পর্যন্ত ভবন নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। এতে প্রতিটির ভবনরে জন্য ১৬ কোটি ৫৮ লাখ টাকা ব্যয় করা হবে। ইতোমধ্যে কয়েকটি উপজেলায় ৩ থেকে ৪ তলা পর্যন্ত ভবন নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। আগামী দুই বছরের মধ্যে সকল উপজেলায় ভবন নির্মাণ কাজ শেষ করা হবে।

  • টিবিটি