হাসবেন যে কারণে

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:৫৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৫৬:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৮

হাসি পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর জিনিস। গবেষনা বলছে, একজন প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষ দিনে গড়ে ২০ বার হাসেন আর শিশুরা হাসে ৪০০ বার।

যেকোন মানুষ হাসলেই মুখ উজ্জ্বল হয়ে যায়। হাসির দারুন শক্তি রয়েছে। হাসলে শুধুমাত্র শরীর ও মন ভাল থাকে তা নয়। আশেপাশের মানুষের মধ্যেও তা ছড়িয়ে যায়। হাসি সংক্রামক। হাসিখুশী মানুষের সান্নিধ্য তাই সবাই পছন্দ করে।

হাসির কারণে যেসব স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যায়-

১. গবেষণায় দেখা গেছে, হাসির কারণে হৃদস্পন্দন নিয়ন্ত্রনে থাকে, মানসিক চাপ কমে।এতে রক্তচাপও থাকে নিয়ন্ত্রণে।

২. বৈজ্ঞানিক গবেষণায় এটা প্রমাণিত হয়েছে, হাসি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় কারণ এটি শরীরকে দুশ্চিন্তা মুক্ত রাখতে সাহায্য করে। শরীরের সেলগুলোকে আরাম দেয় এবং অসুস্থতার সঙ্গে লড়াই করতে শক্তি জোগায়।

৩. হাসি মস্তিষ্কে সিগন্যাল পাঠিয়ে দেয় আপনার সুস্থতার ব্যাপারে। যদি আপনি পর্যাপ্ত হাসেন তাহলে মস্তিষ্ক ইতিবাচক চিন্তা করতে আপনাকে সাহায্য করবে। সেই সঙ্গে নেতিবাচক ভাবনা থেকে আপনাকে মুক্ত রাখবে।

৪. হাসলে এনডোরফিন নামক এক ধরনের হরমোন নিঃসৃত হয় শরীর থেকে। এটি ব্যায়ামের পরেও বের হয়। এতে মস্তিষ্ক আরও সক্রিয় হয়ে ওঠে এবং কাজে শক্তি পাওয়া যায়। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস