‘শত্রুর হুমকি অনুযায়ী প্রতিরক্ষা শক্তির আধুনিকায়ন করেছে ইরান’

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৮:২৬ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৮, ২০১৮ | আপডেট: ৮:২৬:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৮, ২০১৮
‘শত্রুর হুমকি অনুযায়ী প্রতিরক্ষা শক্তির আধুনিকায়ন করেছে ইরান’

ইরানের উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল কাসেম তাকিযাদে বলেছেন, শত্রুর হুমকির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে গোলাবারুদ, ক্ষেপণাস্ত্র ও অন্যান্য প্রতিরক্ষা সরঞ্জামের আধুনিকায়ন করেছে তেহরান।

তিনি আরো বলেছেন, ইরান কখনো যুদ্ধ শুরু করবে না তবে যেকোনো আগ্রাসন শক্তিমত্তার সঙ্গে প্রতিহত করবে। ইরানের প্রতিরোধ শক্তি দেখে আগ্রাসী বাহিনী অনুতপ্ত হবে বলেও তিনি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

গতকাল (শুক্রবার) ইরানের ধর্মীয় নগরী কোমের জুমার নামাজের আগে সমবেত মুসল্লিদের উদ্দেশে দেয়া বক্তব্য জেনারেল তাকিযাদে এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, ইরানের সশস্ত্র বাহিনী বর্তমানে শত্রুর সব ধরনের প্রযুক্তি ও কৌশল রপ্ত করে ফেলেছে এবং তাদের দুর্বলতাগুলো শনাক্ত করেছে।

ইরানের সামরিক সক্ষমতার কথা তুলে ধরতে গিয়ে উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, তার দেশ নিজস্ব প্রযুক্তিতে বিশ্বমানের যেসব সমরাস্ত্র তৈরি করেছে সেসবের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের স্বল্প ও দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র, দুই হাজার কিলোমিটার পাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র, বিভিন্ন শ্রেণির ড্রোন, বিভিন্ন ধরনের ট্যাংক ও সাঁজোয়া যান, বিভিন্ন শ্রেণির যুদ্ধজাহাজ ও গানবোট। এ ছাড়া, নিজস্ব প্রযুক্তিতে বোমারু বিমানের আধুনিকায়নের পাশাপাশি ইলেকট্রনিক যুদ্ধে শত্রুর সক্ষমতা শনাক্তকরণের প্রযক্তি রপ্ত করেছে তেহরান।

ইরানের বহু সমরাস্ত্র ও প্রতিরক্ষা সামগ্রী এখনো উন্মোচন করা হয়নি বলে জানান উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী তাকিযাদে। তিনি বলেন,এসব সমরাস্ত্র কেবল যুদ্ধের সময় শত্রু পক্ষ দেখতে পাবে। সার্বিকভাবে ইরানের প্রতিরক্ষা শক্তির কথা বিবেচনা করে আমেরিকা কখনো তেহরানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে আসবে না বলেও তিনি মন্তব্য করেন।#