মোবাইল ফোন যেভাবে ত্বকের ক্ষতি করে

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:০৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০১৮ | আপডেট: ৭:০৬:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০১৮
মোবাইল ফোন যেভাবে ত্বকের ক্ষতি করে

ভরদুপুরের রোদের মতোই চামড়ার ক্ষতি করতে পারে কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইলের নীলচে আলো! এমনই সতর্কবার্তা দিচ্ছেন গবেষক, চিকিৎসকের একাংশ। তাদের বক্তব্য, ওই নীল আলো মুখে বলিরেখা বাড়ায়, কালচে ছোপ ফেলে হাতে, শিথিল করে গলার চামড়াও।

নিউ মেক্সিকো বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষকের দাবি, ২০ মিনিট কম্পিউটারের সামনে কাজ করা আর রোদে থাকার মধ্যে তফাৎ খুব বেশি নেই। দুই ক্ষেত্রেই সমান ক্ষতি হয় মুখের ত্বকের। একই ক্ষতি করে স্মার্টফোনের নীল আলো।

কলকাতার ত্বক চিকিৎসক সঞ্জয় ঘোষও এ বিষয়ে অনেকটা একমত। তার কথায়, ‘অনেকেই বেশির ভাগ সময়ে ঘর বা অফিসে স্মার্টফোন, কম্পিউটার, ল্যাপটপে ব্যস্ত থাকেন। ওই সব যন্ত্রের নীলচে আলো সূর্যালোকের অতিবেগুনি রশ্মির মতোই ত্বকে কালচে ছোপ ফেলতে পারে। তাতে ত্বকের স্থিতিস্থাপক তন্তু বা কোষ (ইলাস্টিক টিস্যু) নষ্ট হয়। অকাল বার্ধক্যের ছাপ পড়ে মুখে।’

ত্বক চিকিৎসক অশোক কুমার ঘোষাল এই তত্ত্ব মেনে নিলেও জানিয়েছেন, এখনো বিষয়টি নিয়ে তেমন সচেতনতা নেই। তার কথায়, ‘চিকিৎসার পরিভাষায় একে ফোটো-ডার্মাটাইটিস বলা যায়। সূর্যের আলোয় মিনিট পাঁচেক থাকলে ত্বকের যে ক্ষতি হয়, ঘণ্টার পর ঘণ্টা কম্পিউটার, মোবাইলের আলো মুখে পড়লেও তেমনই ক্ষতি হতে পারে।’

আর এর ত্বক চিকিৎসক সুব্রত মালাকার বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে আরো পরীক্ষার প্রয়োজন। তবে দেখা গিয়েছে, যারা দিনের অনেকটা সময় ল্যাপটপের সামনে থাকেন, তাদের মুখের চামড়ায় প্রভাব পড়ছে। ত্বকে মেলানিনের অদলবদলই এর কারণ হতে পারে।’

তবে কলকাতার চিকিৎসকদের একাংশের বক্তব্য, ত্বকে অতিবেগুনি রশ্মির প্রভাব নিয়ে যত গবেষণা হয়েছে, নীল আলোর প্রভাব নিয়ে ততটা হয়নি। ভবিষ্যতে নয়া গবেষণায় এ বিষয়ে আরো অনেক তথ্য সামনে আসবে বলে বক্তব্য তাদের। আনন্দবাজার।

মানবকণ্ঠ