অপচিকিৎসায় কলেজের ছাত্রের মৃত্যু, ডাঃ হারুনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত: ১১:৩৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৮ | আপডেট: ১১:৩৫:অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৮
অপচিকিৎসায় কলেজের ছাত্রের মৃত্যু, ডাঃ হারুনের বিরুদ্ধে মামলা

নাকের পলিপাসের অপারেশনে সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় ডাক্তার হারুন অর রশীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ বুধবার ১১ জুলাই বরিশাল চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের নলছিটি উপজেলার কাঠীপাড়া এলাকার আবুল কালাম আজাদের স্ত্রী মোসাঃ ইসরাত হাজার এমি বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

আদালতের বিচারক মারুফ আহম্মেদ মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনবেষ্টিগেশন (পিবিআই) কে তদন্তের নির্দেশ দেন। আদালতের বরাত দিয়ে বেঞ্চ-সহকারী সাখাওয়াত হোসেন জানান, বাদীর ছেলে গোলাম কিবরিয়া সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের সম্মান প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

গোলাম কিবরিয়ার নাকের পলিপাসে সমস্যা ছিল। সমস্যাটি দিন দিন প্রকট আকারে ধারণ করছিল। পরে বরিশাল নগরীর পুলিশ লাইনস্থ ডাক্তার হারুন অর রশীদের পরিচালিত রওশোনারা মেমোরিয়াল ক্লিনিকে নিয়ে যায়। ওই সময় ডাক্তার হারুন অর রশীদ নাকের পলিপাসের অপারেশন বাবদ ১৫ হাজার টাকা দাবী করে।

এরপরে ২০১৪ সালের ৩ অক্টোবর রাত ৮ টায় ডাক্তার তার নিজস্ব বাসায় বাদীর ছেলের পলিপাস অপারেশন করেন। পলিপাস অপারেশনে গোলাম কিবরিয়ার রক্ত থামা বন্ধ হয়নি। অবস্থা গুরুতর দেখে ডাক্তার পালিয়ে যায়। পরের দিন ৪ অক্টোবর বাদীর ছেলেকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করে।

শেবাচিমের ডাক্তার জানায় গোলাম কিবরিয়ার অবস্থা গুরুতর তাকে ঢাকা নিয়ে যান। পরের দিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই দিন চিকিৎসারত অবস্থায় বিকাল ৩ টায় মৃত্যু বরণ করেন।

বাদীর বিচারের জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়। এরপরেও বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানায় মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ আদালতে মামলা দায়ের করার পরামর্শ দেন। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চেয়ে বুধবার মামলাটি দায়ের করা হয়।