জড়িয়ে ধরা, চুমু খাওয়া স্বাস্থ্যকর!

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ, মে ৯, ২০১৮ | আপডেট: ৯:০৬:পূর্বাহ্ণ, মে ৯, ২০১৮
জড়িয়ে ধরা, চুমু খাওয়া স্বাস্থ্যকর!

‘মুন্না ভাই এমবিবিএস’ চলচ্চিত্রটি আমরা অনেকেই দেখেছি। সেখানে দেখা যায়, মুন্না ভাইয়ের এক অভাবনীয় আবিষ্কার ‘জাদু কি ঝাপ্পি’ অর্থাৎ জড়িয়ে ধরা চিকিৎসা। হাসপাতালের ঝাড়ুদার থেকে শুরু করে রোগী- সবাইকে জড়িয়ে ধরে সে। এর মাধ্যমে সবার মনকে ভালো করে দেওয়া যায়।

গবেষকরা বলেন, আসলেই জড়িয়ে ধরার মধ্যে রয়েছে এক অভাবনীয় ক্ষমতা। এটি মানসিক চাপ কমিয়ে মনকে প্রশান্ত করে। এমনকি হার্টের সমস্যাও অনেক কমিয়ে দেয়।

সম্প্রতি এক গবেষণায় বলা হয়, মানুষের মনকে শান্ত করতে জড়িয়ে ধরা এবং চুমু খাওয়া অনেক উপকারী। এটি ভালোবাসার এক ধরনের বহিঃপ্রকাশ।

তবে কেবল স্বামী-স্ত্রী বা প্রেমিক-প্রেমিকা নয়, সন্তানকে জড়িয়ে ধরা বা চুমু দেওয়াও মনকে প্রশান্ত করে। এ ছাড়া অনেক পুরনো কোনো বন্ধুর সাথে অনেক দিন পর দেখা হলে যখন তাকে জড়িয়ে ধরবেন, দেখবেন অনেক প্রশান্তি অনুভব করছেন। এটি সৌহার্দ্যও বাড়ায়।

বিশেষজ্ঞদের বরাত দিয়ে লাইফস্টাইলবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাই জানিয়েছে জড়িয়ে ধরা এবং চুমু দেওয়া স্বাস্থ্যকর। কেন স্বাস্থ্যকর? সেটাই জানাচ্ছি এবার।

মনের প্রশান্তি

বিশেষজ্ঞরা বলেন, একজন মানুষ আরেকজন মানুষকে জড়িয়ে ধরলে মনে প্রশান্তি আসে। এই জড়িয়ে ধরা শরীর এবং মনে শিথিল অনুভূতি তৈরি করে।

হার্টের জন্য ভালো

গবেষণায় এটা প্রমাণিত যে জড়িয়ে ধরা হার্টের জন্য খুব উপকারি। ভালোবাসার মানুষটিকে জড়িয়ে ধরলে, হার্টের স্পন্দন ভালো হয় এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমে যায়। তাই প্রতিদিন একবার হলেও ভালোবাসার মানুষটিকে জড়িয়ে ধরুন। সেই ভালোবাসার মানুষটি হতে পারে মা-বাবা, সন্তান, প্রেমিক-প্রমিকা বা স্বামী-স্ত্রী।

মানসিক চাপ দূর করে

বিশেষজ্ঞরা বলেন, চুমু দিলে এবং জড়িয়ে ধরলে মানসিক চাপ কমে। এটি শরীরে এপিনেফ্রিন নামক হরমোনের নিঃস্মরণ বাড়িয়ে চাপ দূর করতে সাহায্য করে।

উচ্চ রক্তচাপ

বিশেষজ্ঞরা বলেন, চুমু রক্তের নালীকে প্রসারিত হতে সাহায্য করে। এতে উচ্চ রক্তচাপ কমে যায়। তাই বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ উচ্চ রক্তচাপ কমাতে নিয়মিত সঙ্গীকে চুমু খেয়ে দেখতে পারেন!

মাথা ব্যথা দূর করে

যদি আপনার মন অশান্ত থাকে কোনো কারণে তাহলে ভালোবাসার মানুষটিকে জড়িয়ে ধরুন, প্রশান্তি পাবেন। মানসিক অশান্তির কারণে অনেক সময় আপনার মাথা ব্যথাও হতে পারে, বিশেষজ্ঞরা বলেন, কাছের মানুষকে জড়িয়ে ধরুন, মন শান্ত হবে এবং মাথা ব্যথা কমে যাবে। জড়িয়ে ধরলে রক্তনালি প্রসারিত হয় এবং শরীর শিথিল হয়।

ব্যায়াম হয়

বিশেষজ্ঞরা বলেন, চুমু দেওয়া কেবল মানসিক চাপ দূর করে না, এতে এক ধরনের ব্যায়ামও হয়। বলা হয়, আপনার সঙ্গীকে পাঁচ মিনিট চুমু খেলে ঘাড় এবং জো লাইনের ব্যায়াম হয়। চুমু মুখের পেশির জন্য একটি ভালো ব্যায়াম।

নেশা দূর করতে সাহায্য করে

একজন ব্যক্তি আরেকজন ব্যক্তিকে জড়িয়ে ধরলে অক্সিটোক্সিন নামক হরমোন উৎপন্ন হয়। এটি মদ্যপান এবং মাদকের নেশা কমাতে সাহায্য করে। তাই জড়িয়ে ধরুন ভালোবাসার মানুষকে। আর বাঁচুন আনন্দ নিয়ে।