শীত মৌসুমেও সবজির বাজার চড়া ॥ হিমশিম খাচ্ছে নিন্ম আয়ের মানুষ ॥

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১১:৩০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১০, ২০১৭ | আপডেট: ১১:৩০:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১০, ২০১৭
SAMSUNG CAMERA PICTURES

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ॥ কলাপাড়ায় শীত মৌসুমেও সবজির বাজার চড়া রয়েছে। আর এ লাগামহীন বাজারে চড়া দামে সবজি কিনতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে খেটে খাওয়া সাধারন মানুষসহ মধ্য আয়ের মানুষ। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ, নানা অজুহাতে সিন্ডিকেট তৈরি করে চড়া দামে বিক্রি করছেন বিক্রেতারা। আর বিক্রেতারা বলছেন, মোকামে উচ্চ মূল্য, পরিবহন খরচ বৃদ্ধি এবং উত্তারাঞ্চলে বন্যার কারনে মোকামে সবজির আমদানী কম থাকায় বাজার মূল্য চড়া রয়েছে।
সরজমিনে স্থানীয় বাজার ঘুরে দেখা যায়, সিম প্রতি কেজি ১২০ টাকা, বাঁধাকপি ৬০ টাকা, ফুলকপি ৬০ টাকা, ওলকপি ৬০ টাকা, ঢেঁড়স ৬০ টাকা, করলা ৮০ টাকা, পটোল ৬০ টাকা, পেঁপে ৩৫ টাকা, মুলা ৫০ টাকা, শসা ৭০ টাকা, টমেটো ১৬০ টাকা, কাঁচা মরিচ ১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কাঁচামাল ব্যবসায়ী মামুন মৃধা জানান, অসময়ে অতিরিক্তি বৃষ্টিপাতের ফলে স্থানীয়ভাবে সবজির উৎপাদন কম হয়েছে। উত্তারাঞ্চলে বন্যার কারনে সবজি কম উৎপাদিত হয়েছে। ফলে চাহিদার বিপরীতে সেখানকার মোকামেও সবজির ঘাটতি রয়েছে। একারনে মোকামে থেকে বেশি দামে সবজি কিনতে হচ্ছে। খুরচা বিক্রেতা দুলাল জানান, অনেক সময় চাহিদানুযায়ী সবজি পাচ্ছিনা। স্থানীয় আড়ৎ থেকে বেশি দামে কিনতে হচ্ছে বলে বেশি দামেই বিক্রি হচ্ছে।
তবে বিক্রেতাদের এই অজুহাত মানতে রাজী নয় ক্রেতারা। ক্রেতা সাহাবুদ্দি জানান, মৌসুমের শুরু থেকেই চড়া রয়েছে সবজির বাজার মুল্য। উত্তরাঞ্চলে বন্যা আর দক্ষিনাঞ্চলে অতি বৃস্টির অজুহাত তুলে স্থানীয় সবজি ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট তৈরি করে চড়া মুল্যে বিক্রি করছেন। অপর ক্রেতা দিন মজুর আবুল কালাম জানান, মৌসুমের সবজি কিনতে এসে দামের কারনে হিমশিম খেতে হচ্ছে। পরিবারের চাহিদার অর্ধেক সবজি কিনেই সন্তুষ্ট থাকতে হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email