‘ভোলার ‘স্বাধীনতা জাদুঘর’ তরুণদের আলোর পথ দেখাবে’

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:৩৯ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৮ | আপডেট: ৯:৩৯:পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৮
‘ভোলার ‘স্বাধীনতা জাদুঘর’ তরুণদের আলোর পথ দেখাবে’

প্রতিবেদক: তরুণ প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে দ্বীপ জেলা ভোলায় প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে ‘স্বাধীনতা জাদুঘর।’ এর মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধসহ এদেশের আন্দোলন সংগ্রামের ইতিহাস জেনে কিশোর-তরুণরা সমৃদ্ধ হবে বলে মনে করেন, স্থানীয় লোকজন। আর জাদুঘরটি দেশগঠনের পাশাপাশি, তরুণদের আলোর পথ দেখাতে সহায়তা করবে বলে মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

যুদ্ধের বারুদপোড়া গন্ধ, বধ্যভূমিতে পড়ে থাকা এদেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের মৃতদেহ কিংবা কোন মুক্তিযোদ্ধার বীরত্বগাথা দেখার সুযোগ হয়নি এ প্রজন্মের তরুণদের। তাদের কাছে স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস ও স্বরূপ তুলে ধরতে দ্বীপ-জেলা ভোলায় গড়ে তোলা হয়েছে এই ‘স্বাধীনতা জাদুঘর’।

নাগরিক কোলাহলমুক্ত সবুজ শ্যামল এ জেলায় মাথা উঁচু করে দাড়িয়ে থাকা, দৃষ্টিনন্দন জাদুঘরটিতে তুলে ধরা হয়েছে, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে বাহান্নর ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধ এবং পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর আত্মসমর্পণের নানা কাহিনী। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধের বই পড়া ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনের সুবিধা রয়েছে এখানে। এদেশের প্রতিটি আন্দোলনের নানা তথ্যে সমৃদ্ধ এমন একটি জাদুঘর পেয়ে খুশী স্থানীয় লোকজন।

তারা বলেন, আমাদের মধ্যে দেশপ্রেমের অনুপ্রেরণা এই স্মৃতি জাদুঘরের মধ্যে দিয়ে জাগবে। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ১৯৭১ এর মুক্তিযুদ্ধ সহ প্রতিটি গণ আন্দোলন এখানে তুলে ধরা হয়েছে।

স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর ইতিহাস সমৃদ্ধ এই জাদুঘর প্রতিষ্ঠার ফলে তরুণদের সঠিক ইতিহাস জানার আগ্রহ পূরণ করবে বলে মনে করেন এর প্রতিষ্ঠাতা মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক তোফায়েল আহমেদ।

তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করার পর স্বাধীনতার ইতিহাসকে বিকৃত করার চেষ্টা করা হয়েছে। আজকে জাদুঘরে কেউ আসলে বুঝতে পারবে বাংলাদেশ কিভাবে স্বাধীন হয়েছে।

তাঁর মতে, মুক্তিযুদ্ধসহ এদেশের সকল সংগ্রামের ইতিহাস সম্পর্কে জানার সুযোগ হবে জাদুঘরটির মাধ্যমে।

তোফায়েল আহমেদ বলেন , ‘ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন থেকে শুরু করে সকল সংগ্রামের ঐতিহ্য চিত্র এখানে দেখতে পাওয়া সম্ভব হবে।’ সূত্র: মসয় টিভি