দশমিনা আদালত চত্বরে নিজ মোয়াক্কেলকে পিটিয়ে জখম

প্রকাশিত: ৫:০৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮ | আপডেট: ৫:০৭:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৮
দশমিনা আদালত চত্বরে নিজ মোয়াক্কেলকে পিটিয়ে জখম

গতকাল বুধবার দুপুর দেড়টায় পটুয়াখালীর দশমিনা সিনিয়র জুডিসিয়ালম্যাজিস্ট্রেট আদালত চত্বরে উকিলবারের সামনে নিজ মোয়াক্কেলকে পিটিয়ে জখমকরেছে আইনজীবী ও সঙ্গীয়রা।ভুক্তভোগী’র অভিযোগ, দশমিনা সিনিয়ন জুডিসিয়াল আদালতে চলমান মামলা জি আর৫৯/১৭ এর আসামী আবুবক্কর বিশ্বাস, রফিকুল ইসলাম বিশ্বাস, মোঃ নুরুজ্জামানবিশ্বাস, আঃ রব বিশ্বাস গতকাল বুধবার হাজিরা দিতে আসে। আদালতের বিজ্ঞবিচারক হাজির আসামীদের জামিন ও মামলার অপর দুই আসামীদের বিরুদ্ধেওয়ারেন্ট জারি করে। দূরে অবস্থান জনিত গড়হাজির থাকা আসামী বাচ্চু বিশ্বাসও রাসেল বিশ্বাসের পক্ষে সময় চেয়ে আবেদন না করায় হাজির আসামীদের সাথেপক্ষীয় আইনজীবী ও আইনজীবী কল্যান সমিতির সভাপতি এ্যাড. সিকদার গোলামমোস্তফার কথা কাটাকাটির এক পর্যায় আইনজীবী ও তাঁর মোহরার সিকদার জাফরইকবাল নুরুজ্জামান ও রফিকুলের গায়ে হাত তোলে। একই দিনে, দশমিনাসাব-রেজিষ্টার অফিসে হামলার ঘটনায় আসামী উপজেলা আওয়ামীলীগ ও যুবলীগেরকতিপয় নেতাকর্মীরা হাজিরা দিয়ে জামিনে মুক্তি পেয়ে বের হলে ওই ঘটনারমুখোমুখি হয়। এ সময় মোঃ নুরুজ্জামান বিশ্বাস ও মোঃ রফিকুল ইসলামবিশ্বাসকে আদালত চত্বরে অবস্থিত উকিল বারের সামনে মারধর করে আহত করে।ভুক্তভোগী রফিকুলের অভিযোগ, আদালত চত্বরে মারধর করার সময় ৩/৪ পুলিশ সামনেথাকলেও কোন প্রতিকার না পাওয়া ও জীবননাশের হুমকি থাকায় এ মুহুর্তে কোনমামলা করতে চায়না। গুরুতর আহত মোঃ নুরুজ্জামান বিশ্বাসকে দশমিনাস্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। উল্লেখ্য এ্যাড. সিকদার গোলামমোস্তফা বর্তমানে দশমিনা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছেন।এরপূর্বে ৯ এপ্রিল ২০১৫ এইচএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রের ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করেসিকদার গোলাম মোস্তফা কর্তৃক দশমিনা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হামলা চালিয়ে ২ শিক্ষককে আহত করার ঘটনা বিভিন্ন জাতীয় ও আঞ্চলিক প্রত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।এ ঘটনায় দশমিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাবু রতন কৃষ্ণ রায় চৌধুরী বলেন, ওখানে একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। অভিযোগ পেলেআইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।