শ্রীপুরে মেয়েকে ধর্ষন চেষ্টা অভিযোগে বাবা গ্রেফতার

এস এম জহিরুল ইসলাম এস এম জহিরুল ইসলাম

গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১০:৪৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৪৭:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮
গাজীপুরের শ্রীপুরে টেপিরবাড়ি গ্রাম হতে কিশোরী (১২) মেয়েকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে সোমবার ভোর রাতে বাবাকে গ্রেপ্তার করেছে শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক(এসআই) এখলাসুর রহমান। এদিকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মেয়ের মায়ের অভিযোগটি সোমবার দুপুরে মামলা হিসেবে রেকর্ড করেছে শ্রীপুর থানা।
গ্রেপ্তার রবিউল ইসলাম (৩৫) পঞ্চগড় জেলার তেতুলিয়া উপজেলার মাথাফাটা গ্রামের ওয়াহাব আলীর ছেলে। নির্যাতনের শিকার কিশোরীটি তার ঔরষজাত কন্যা। রবিউল স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে টেপিরবাড়ি গ্রামের আলিমউদ্দিনের বাড়িতে ভাড়া থেকে মাওনা ফ্যাশন নামক কারখানায় কাজ করত।
কিশোরীর স্বজন ও শ্রীপুর থানা পুলিশের ভাষ্যমতে, গ্রেপ্তার রবিউল গত এক বছর ধরে এক পুত্র ,কন্যা সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে টেপিরবাড়ি গ্রামের আলিম উদ্দিনের বাড়িতে ভাড়া থেকে স্থানীয় মাওনা ফ্যাশন নামক কারখানায় কাজ করত। তার মেয়েটি স্থানীয় একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী। গত রোববার রাতে রবিউল পরিবারের লোকজনের সাথে প্রতিদিনের মত ঘুমাতে যায়। রাত গভীর হওয়ার পর সকলে ঘুমিয়ে গেলে রবিউল তার মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। পরে মেয়ের চিৎকারে তার মা ঘুম থেকে জাগ্রত হলে সে দ্রুত ঘর থেকে বের হয়ে যায়।
শ্রীপুর থানার উপপরিদর্শক(এসআই) এখলাছ উদ্দিন দৈনিক খবর বাংলাদেশ প্রতিবেদক কে জানান,মেয়ের মায়ের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পরই সোমবার ভোর রাতে রবিউলকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে দুপুরে মামলা রজু হওয়ার পর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।