কাহারোলে ১৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৭৮ টি বাড়ীর বিদ্যুতায়নে উদ্বোধন

এন.আই.মিলন এন.আই.মিলন

দিনাজপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১১:২৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৮ | আপডেট: ১১:২৯:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৮
কাহারোলে ১৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৭৮ টি বাড়ীর বিদ্যুতায়নে উদ্বোধন

জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, একটি দেশ অর্থনৈতিক ভাবে ঠিক তখনই সাবলম্বী হতে পারবে যখন সে দেশের মানুষ সুশিক্ষা অর্জন করতে সক্ষম হবে। শিক্ষা ছাড়া যেমন উন্নয়ন সম্ভব নয় ঠিক তদরুপ বিদ্যুৎ ছাড়া একটি দেশ কখনও উন্নত দেশে পরিণত হতে পারে না।
২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার ২নং রসুলপুর ইউনিয়নে পূর্ব রসুলপুর, পশ্চিম রসুলপুর ও ডহন্ডা গ্রামে ১৩ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৭৮ টি বাড়ীর বিদ্যুতায়নে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এমপি গোপাল আরো বলেন, শেখ হাসিনার সরকারের আমলে দেশে কোন গ্রাম অন্ধকার থাকবে না। এরই বহিঃপ্রকাশ কাহারোল উপজেলায় প্রত্যেক গ্রামে বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করা হচ্ছে। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া যখন ক্ষমতায় ছিল তখন দেশকে অন্ধকারে রেখেছিল। আর বর্তমান শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় থেকে বিদ্যুতের ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। এজন্যই দেশের জনগন বারবার শেখ হাসিনার সরকারকে ক্ষমতায় দেখতে চায়।
বিদ্যুৎতের আলোয় আলোকিত হওয়ায় ২নং রসুলপুর ইউনিয়নের পূর্ব রসুলপুর এক বৃদ্ধ মহিলা সখিনা বেগম আবেগের সাথে বলেন, ‘‘জন্মের পর থাকি হামরা অন্ধকারত আছিনো। হামার ছোয়াল-পোয়ালরা কষ্টকরি হেনে হারিকেন জ¦ালাই পড়া লেখা করেছেল। আইজ হামার এমপি, গোপাল দা হামাক কারেন দিলি। এখন হামার ছোয়াল পোয়ালরা ভাল করি পড়ালেখা করিবা পারিবি’’।
২নং রসুলপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি ভূপেন্দ্র নাথ রায় এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার হরেন্দ্র নাথ বর্মন, দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর এজিএম দীলিপ বর্মন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. মনসুর আলী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল হোসেন ও দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর সাবেক এলাকার পরিচালক ও সভাপতি আলহাজ¦ মো. মাজেদুর রহমান খোকন।
অনুষ্ঠানটির পরিচালনা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সঞ্জয় কুমার মিত্র।
এর আগে বীরগঞ্জ উপজেলার ৮নং ভোগনগর ইউনিয়নের বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের আয়োজনে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ইউনিক সন্ধানী ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ ইউনিক সন্ধানী জাতীয় চক্ষুদান সমিতির সহযোগীতায় শীতার্ত মানুষদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন এমপি গোপাল।