স্ত্রীর থেকে যে ৫টি কথা শুনতে চান স্বামী!

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:০২ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৮ | আপডেট: ১০:০২:পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৮

পৃথিবীর সবচেয়ে আপন এবং মধুর একটি সম্পর্কের বন্ধনগুলোর মধ্যে একটি স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক। তাই অনেকেই ভাবেন স্বামীকে খুব ভাল করেই চেনেন তিনি। তার মনের সব গোপন কথা জানেন স্ত্রী। কিন্তু এমনটা সত্যি নয় মোটেও।

স্বামীর মনে বেশ কিছু আক্ষেপ রয়েছে। একটি সমীক্ষা বলছে, অধিকাংশ পুরুষই তাদের স্ত্রীর মুখ থেকে কিছু নির্দিষ্ট কথা শুনতে চান। কিন্তু যে কারণেই হোক, পুরুষদের সে ইচ্ছা সবক্ষেত্রে পূরণ হয় না। এই প্রতিবেদনে রইল সেই সব গোপন কথা, যেগুলো স্ত্রীর মুখ থেকে শুনতে চান পুরুষরা।

১. একটি বেসরকারি সংস্থার সমীক্ষায় সাতজন স্বামী তাদের মনের আক্ষেপের কথা ফাঁস করেছেন। এই আক্ষেপের প্রথমেই রয়েছে, স্ত্রীর কাছ থেকে ‘তোমায় বড্ড ভালবাসি’ শুনতে চাওয়ার তীব্র আকাঙ্খা। দৈনন্দিন কাজের চাপে অধিকাংশ দাম্পত্যেই এখন নাকি স্ত্রীরা তাদের লাইফ পার্টনারকে ‘আই লাভ ইউ’ টুকু বলার সময় পান না। অথচ, এই তিনটি শব্দই কিন্তু পার্টনারের দাম্পত্যের মরা গাঙে নতুন জোয়ার এনে দিতে পারে।

২. একজন স্বামী বলছেন, ‘আমি জানি সন্তানরা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু তাই বলে আমার দিকে একটুও নজর না দিয়ে শুধু সন্তানদেরই গুরুত্ব দিলে আমি অবহেলিত বোধ করি।’ তার প্রশ্ন, স্ত্রীর কাছে একটু অ্যাটেনশন পেতে আমি আর কতদিন অপেক্ষা করব?

৩. ‘কোনো প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছি না মানে এই নয় যে আমি কিছু লুকোচ্ছি। হতেই পারে আমি হয়তো অন্য কিছু ভাবছি বা আমার মাথা সে সময় ব্ল্যাঙ্ক।’, আক্ষেপ এক স্বামীর। অনেক স্ত্রীই মনে করেন, স্বামী কোনো প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন না মানে হয়তো তিনি কিছু সিক্রেট রাখতে চান। কিন্তু আদতে এমনটা নাও হতে পারে।

৪. শাশুড়ির সঙ্গে ঝগড়া হলে স্ত্রীরা তাদেরও তাতে জড়িয়ে ফেলুক, এটা খুবই অপছন্দ পুরুষদের। একদিকে মা, অন্যদিকে স্ত্রী- এই দুইয়ের দ্বন্দ্বের মধ্যে পড়তে চান না তারা।প্রেম নিবেদনের জন্য বিশ্বের সেরা গন্তব্য?

৫. শয্যায় পুরুষরা কতটা পারদর্শী, সেটা স্ত্রীর মুখ থেকেই শুনতে ভালবাসেন তারা। আর এক স্বামী বলছেন, ‘এটাকে পুরুষদের নিরাপত্তাহীনতা বলতেই পারেন। আমরা শয্যায় আমাদের পারফরম্যান্স নিয়ে সংশয়ে থাকি। পার্টনারের ভালো লেগেছে কি না, সেটা তার মুখ থেকে শোনার চেয়ে বেশি আনন্দের আর কিছুই নয়।’

এছাড়া স্ত্রীকে বাড়ির কোনো কাজে সাহায্য করলে, সে বিষয়ে খানিকটা প্রশংসা শুনতে চান পুরুষরা।