ছাত্রলীগ নেতার লাশ, বাবা আসার পর দাফন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৭, ২০১৮ | আপডেট: ৯:১৭:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৭, ২০১৮
ছাত্রলীগ নেতার লাশ, বাবা আসার পর দাফন

ফেনীতে প্রতিপক্ষের ছুরিতে নিহত ছাত্রলীগ নেতা মো. শাকিল আহমেদ হত্যার ঘটনায় কেউ আটক হয়নি। থানায় কোনো মামলাও হয়নি। তার মরদেহ হিমগাড়িতে রাখা আছে। আবুধাবী প্রবাসী পিতা হুমায়ূন কবির এলে দাফন সম্পন্ন হবে।

ফেনী মডেল থানার ওসি রাশেদ খাঁন চৌধুরী জানান, বৃহস্পতিবার রাতে দুর্বৃত্তরা ফেনী সদরের এস এস কে রোডের জহিরিয়া মসজিদ এলাকায় শাকিলকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে ফেনী সদর হাসপাতাল থেকে চট্টগ্রামে স্থানান্তরের সময় রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়। ঘটনার পর ফেনী থানা পুলিশের একাধিক দল পুরাতন পুলিশ কোয়ার্টারসহ বিভিন্ন স্থানে জড়িতদের ধরতে তল্লাশি চালায়। তবে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি।

এদিকে ফেনীর পুলিশ সুপার এস এম জাহাঙ্গীর আলম সরকার বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনার পর এস এস কে রোডের শহর পুলিশ ফাঁড়িতে বসে জড়িতদের আটকের অভিযান তদারক করেন। তিনি এ সময় সাংবাদিকদের বলেন, শাকিল হত্যায় জড়িতদের আটকে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। এদের আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে বলে তিনি জানান।

পারিবারিক সূত্র জানায়, কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গুণবতী এলাকার বাসিন্দা, আবুধাবী প্রবাসী হুমায়ূন কবিরের ছেলে মো. শাকিল আহমেদ ফেনী পৌরসভার ১৬নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন।

তিনি ফেনী সদরের জয়নাল হাজারী কলেজ থেকে এবার এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। ফেনী শহরের পাঠানবাড়ি রোডের পুরাতন রেজিষ্ট্রি অফিস এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন তারা। চট্টগ্রাম থেকে ফেনীতে এনে হিমগাড়িতে রাখা আছে শাকিলের মরদেহ। শনিবার পিতার আগমনের পর গুণবতীর বাড়িতে দাফনের কথা রয়েছে।