মঠবাড়িয়ায় সারা শরীর জুড়ে টিউমার আক্রান্ত দেলোয়ার বাঁচতে চায়

প্রকাশিত: ৫:৫৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৬, ২০১৮ | আপডেট: ৫:৫৬:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৬, ২০১৮

দশ বছর বয়সে দেলোয়ার হোসেন মল্লিকের (২৮) মাথার পিছনে টিউমার ধরা পড়ে। অতি দরিদ্র পরিবারের সন্তান দেলোয়ারের অর্থাভাবে সু-চিকিৎসা করতে পারেনি। মানুষের কাছে হাত পেতে দশ বছর বয়সে বরিশাল মেডিকেলে প্রথম মাথায় অপারেশন করে টিউমার অপসারন করা হয়। তবে এতে সে আরোগ্য লাভ করেনা। পর্যায়ক্রমে টিউমার তার সারা শরীর জুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। ২৮ বছরের জীবনে সে টিউমার ভয়াবহ আকার ধারন করে। ঘাড় থেকে বিশাল আকৃতির টিউমার পীঠ থেকে কোমরের নিচ অবধি ঝুলে যায়। সারা শরীরে ভয়াল টিউমারের বোঝা নিয়ে ধুঁকে ধুঁকে মৃত্যুর সাথে লড়ছে দেলোয়ার।

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার মিরুখালী ইউনিয়নের ছোটশৌলা গ্রামের দরিদ্র কৃষক মালেক মল্লিকের ছেলে দেলোয়ার হোসেনের পরিবারের পক্ষে কার্যকর কোন চিকিৎসা করানো সম্ভব হ্েচ্ছনা। এমন অবস্থায় দরিদ্র পরিবারটি অসুস্থ দেলোয়ারকে নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে।
দেলোয়ারের কৃষক বাবা মালেক মল্লিক জানান, তার ছেলে দেলোয়ার দ্বিতীয় শ্রেণীতে পড়ার সময় মাথার পিছনে প্রথম টিউমার আক্রান্ত হয়। টিউমারটি দিনদিন বড় হতে থাকলে মানুষের কাছে হাত পেতে বরিশালে অপরেশন করা হয় তার। এমন অবস্থায় শিশু দেলোয়ারের স্কুলের যাওয়া আসা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর আর স্কুলে লেখা পড়া হয়না তার। অপরেশনের ক্ষত শুকাতে না শুকাতে সারা শরীর জুড়ে নতুন করে টিউমার ছড়িয়ে পড়ে। দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে ওই টিউমার ভয়াবহ আকার ধারন করে মাথার পিছন হতে হাঁটু অবধি ঝুলে যায়। অর্থ কষ্টে বিপন্ন দেলোয়ারের আর চিকিৎসা হয়না। এমন অবস্থায় বিশাল আকৃতির টিউমারের বোঝা নিয়ে চরম কষ্টে কাটছে তার জীবন।

সম্প্রতি দেলোয়ারের পরিবার মানুষের কাছে হাত পেতে চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের টিউমার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. মঞ্জুর রহমানের কাছে চিকিৎসা করান। চিকিৎসক জানিয়েছেন ধাপে ধাপে অপারেশনের মাধ্যমে দেলোয়ারের চিকিৎসা প্রয়োজন। এতে দীর্ঘ সময় ও অনেক অর্থের প্রয়োজন। কিন্তু দরিদ্র পরিবারের পক্ষে এ ব্যায় বহুল চিকিৎসা করানো সম্ভব হচ্ছেনা। বর্তমানে দেলোয়ার চট্রগ্রামে এক নিকট আত্মীয়র বাসায় সু চিকিৎসার আশায় অবস্থান করছে। চলতি মাসের ৩০ জানুয়ারী হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে। কিন্তু এমন অবস্থায় চিকিৎসার ন্যূনতম অর্থও জোগার করতে পারেনি পরিবারটি। ফলে অসুস্থ দেলোয়ারের হাসপাতালে ভর্তি ও চিকিৎসা অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।
তাই দরিদ্র দেলায়ারের পরিবারটি দেশের সহৃদয় মানুষের কাছে চিকিৎসার অর্থের জন্য আকুল আবেদন জানিয়েছেন।
যোগাযোগের ঠিকানা Ñমো. মালেক মল্লিক( টিউমার আক্রান্ত দেলোয়ারের বাবা)
গ্রাম- ছোট শৌলা, ইউনিয়ন- মিরুখালী, উপজেলা- মঠবাড়িয়া, জেলা- পিরোজপুর। মোবাইল- ০১৭২৬১৫৬৯৮৯ ( বিকাশ নম্বর) ব্যাংক হিসাব নম্বর- ০২০০০০৮৮৭১১২৫, অগ্রণী ব্যাংক, মিরুখালী শাখা । মঠবাড়িয়া, পিরোজপুর।