যৌতুক না পেয়ে অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর শরীরে বিষাক্ত তরল পদার্থ নিক্ষেপ

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৪:৩১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০২১ | আপডেট: ৪:৩১:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১০, ২০২১

পদার্থ নিক্ষেপের অ’ভিযোগ উঠেছে।শনিবার রাত ১০টার দিকে ওই গৃহবধূকে আ’হতাবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে মাদারীপুর সদর হাসপাতা’লে। এ ঘটনায় অ’ভিযু’ক্ত স্বামী ও শ্বশুরকে আ’ট’ক করেছে সদর থা’না পু’লিশ।এদিকে গৃহবধূর পরিবারের দাবি— যৌতুকের কারণে অ্যাসিড নিক্ষেপ করা হয়েছে।

তবে সদর হাসপাতা’লের চিকিৎসক মো. মনিরুজ্জামান বলেছেন, বিষাক্ত খারজাতীয় তরল পদার্থ নিক্ষেপ করায় শরীরের চামড়ায় কিছুটা ক্ষতি হয়েছে।এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানান, এ বছরের জানুয়ারি মাসে মাদারীপুর সদর উপজে’লার ঝাউদী ইউনিয়নের মাদ্রা গ্রামের সুমন শেখের সঙ্গে বিয়ে হয় একই ইউনিয়নের কালাই’মা’রা গ্রামের ওই মে’য়ের। বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকজন বিভিন্ন সময়ে যৌতুক দাবি করে আসছিল।

বিয়ের দুই মাস পরে সে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পরেই বাবার বাড়ি চলে আসেন ওই গৃহবধূ। কিন্তু তাতেও ক্ষান্ত হয়নি সুমন ও তার পরিবার। স্থানীয়রা কয়েকবার বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্টা করেছেন।

এ অবস্থায় শনিবার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূর বাবার বাড়িতে আসেন সুমন ও তার বাবা সোবহান শেখ। পরে সুমন কৌশলে তাকে ডেকে ঘরের পেছনে নিয়ে যায়। তখন বোতলে থাকা বিষাক্ত পানি নিক্ষেপের চেষ্টা চালায়। ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে তার হাত ও মুখমণ্ডলে বিষাক্ত পদার্থ ছিট’কে দেয়।

পরে ওই গৃহবধূর চি’ৎ’কারে স্বজন ও এলাকাবাসী এগিয়ে এসে তাকে উ’দ্ধা’র করে জে’লা সদর হাসপাতা’লে ভর্তি করেন। পালিয়ে যাওয়ার সময় শ্বশুরকে আ’ট’ক করা হয়। পরে অ’ভিযান চালিয়ে অ’ভিযু’ক্ত সুমনকে আ’ট’ক করে সদর থা’না পু’লিশ।

Print Friendly, PDF & Email