ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের আহবান

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ব্রিফিং-

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৬:২৫ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৬, ২০২১ | আপডেট: ৬:২৫:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৬, ২০২১

অনলাইনে সাধারণ মানুষের মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ওপর চালানো দমনপীড়ন বন্ধ করতে বাংলাদেশি কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। সোমবার ভোরে প্রচারিত সংস্থাটির এক ব্রিফিং-এ এই আহবান জানানো হয়। নিবর্তনমূলক ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট (ডিএসএ) বাতিল বা আইনটিকে আন্তর্জাতিক মান ও মানবাধিকার আইনের অনুসরণে সংশোধন করারও আহবান জানিয়েছে সংস্থাটি

 

ব্রিফিং-এ বলা হয়, ২০১৮ সালের অক্টোবরে প্রবর্তন করা ডিএসএ সামাজিক মাধ্যম, ওয়েবসাইট এবং অন্যান্য ডিজিটাল প্লাটফর্মে ভিন্নমত দমনের জন্য ক্রমাগতভাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে; যাতে সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে রয়েছে যাবজ্জীবন। অনলাইনে ভুয়া, আক্রমাণাত্মক, অবমাননাকর ও মানহানিকর বক্তব্য ছড়িয়েছেন এমন অজুহাতে কর্তৃপক্ষ সমালোচনাকারীদের লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে।

 

মুক্তমতকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা: ব্রিফিং এ বলা হয়, সমালোচনাকারীদের হয়রানি করতে আইনটির কয়েকটি ধারাকে কর্তৃপক্ষ হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে এমন উদ্বেগজনক নমুনা খুঁজে পেয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। এসব ধারার মধ্যে রয়েছে ২৫ (বানোয়াট, আক্রমাণাত্মক এবং হুমকি সৃষ্টিকারী তথ্যের প্রচার, প্রকাশ প্রভৃতি), ২৯ (মানহানিকর তথ্যের প্রচার, প্রকাশ প্রভৃতি) এবং ৩১ (আইনশৃঙ্খলায় বিঘ্ন ঘটানোর শাস্তি, প্রভৃতি) ধারা।

Print Friendly, PDF & Email