মঠবাড়িয়ায় ৮৪ ফুট উচ্চতার কালি প্রতিমার পূজা উৎসব

প্রকাশিত: ১০:০৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০১৮ | আপডেট: ১০:০৯:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০১৮
মঠবাড়িয়ায় ৮৪ ফুট উচ্চতার কালি প্রতিমার পূজা উৎসব

পিরোজপুররের মঠবাড়িয়া উপজেলার উত্তর মঠবাড়িয়া গ্রামের নির্মল চাঁদ ঠাকুর বাড়িতে ৮৪ ফুট (৫৬হাত ) উচ্চতার কালি প্রতিমার পূজা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত। সরস্বতী পূজার আগের দিন রাত খেকে শুরু হওয়া তিন দিন ব্যাপী এ কালী পূজা উৎসব ঘিরে দেশের দুর দুরান্ত হতে লক্ষাধিক মানুষের পদচারণা ঘটেছে। আয়োজকদের দাবি এ উচ্চতার কালি পূজা এশিয়ার মধ্যে অন্যতম । ২৮ বছর ধরে এ কালি পূজা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে।
গত রবিবার দিবাগত থেকে শুরু হওয়া এ বিশালাকৃতির কালি প্রতিমার পূজা অনুষ্ঠান আজ মঙ্গলবার শেষ হয়েছে। উপজেলা সদর ইউনিয়নের উত্তর মঠবাড়িয়া গ্রামের নির্মল চাঁদ সাধু ঠাকুর বাড়ির শ্রী শ্রী হরি মন্দির প্রাঙ্গনে এ বিশালাকৃতির কালি প্রতিমার তিন দিন ব্যাপী পূজা অনুষ্ঠিত হয়। তবে আজ মঙ্গলবার তিন দিনের এ পূজা অনুষ্ঠান শেষ হলেও আগামী এক সপ্তাহ জুড়ে এখানে উৎসবের আমেজ চলবে। প্রতিবছরের ন্যায় এবারও এ বিশালকৃতির প্রতিমা দর্শণে দেশের দূরদুরান্ত হতে হাজার হাজার হিন্দু ধর্মালম্বী ভক্তবৃন্দসহ অন্যান্য ধর্মের অনুসারী মানুষও এ উৎসব স্থলে সমবেত হন।
মন্দিরের সেবায়েত শ্রী সন্তোষ মিস্ত্রী জানান, গত ২৮ বছর ধরে প্রতিবছর স্বরস্বতী পূজার একদিন আগে এ ঐতিহ্যবাহী কালি পূজা শুরু হয়ে টানা তিন দিন উৎসব চলে। ১৯৯০ সালে তিন ফুট উচ্চতার কালি প্রতিমা দিয়ে এ মন্দির প্রাঙ্গনে পূজা শুর হয়। প্রতিবছর প্রতিমার উচ্চতা বাড়তে বাড়তে এবার ৮৪ ফুটের প্রতিমা নির্মিত হয়। এছাড়া ৯০ ফুট লম্বা মহাদেব প্রতিমাও নির্মাণ করা হয়ে। এ কালি পূজা উৎসব ঘিরে উৎসবস্থলে মেলাও অনুষ্ঠিত হচ্ছে।
প্রতিমার প্রধান কারিগর বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার ভাস্কর নিত্যানন্দ হালদার জানান,তিনি গত ১৫ বছর ধরে প্রতিবছর এখানে এ কালি প্রতিমা নির্মাণ করে আসছেন। এবছর তিনি ৮৪ ফুট উচ্চতার প্রতিমা নির্মাণ করেছেন। তিনি আরও বলেন, এশিয়ার মধ্যে এত বড় উচ্চতার কালি প্রতীমার পূজার আয়োজন করা হয় কিনা আমাদের জানানেই। এ প্রতিমা নির্মাণে বাঁশ,নলের কঞ্চি, মাটি, কাঠের গুড়ি ও খড় ব্যবহার করা হয়েছে ।


Mountain View

Mountain View

Mountain View