সংসদে ৭ কলেজের সমস্যা সমাধানের দাবি

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:০৩ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০১৮ | আপডেট: ৯:০৩:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০১৮
সংসদে ৭ কলেজের সমস্যা সমাধানের দাবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত হওয়া ঢাকার সাতটি বড় সরকারি কলেজ নিয়ে সৃষ্ট সমস্যার সমাধান করার দাবি উঠেছে সংসদে। একই সঙ্গে এ বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রীর বিবৃতি চাওয়া হয়েছে।

গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদের অধিবেশনে এক অনির্ধারিত আলোচনায় প্রসঙ্গটি তোলেন জাতীয় পার্টির সাংসদ কাজী ফিরোজ রশীদ। এর রেশ ধরে ছাত্রদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি ছাত্রদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে সরকারের সংশ্লিষ্ট সবাইকে যত্নবান হওয়ার পরামর্শ দেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের বিষয়ে কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে ছাত্রসংগ্রাম পরিষদ মুক্তিযুদ্ধে সবার আগে অস্ত্র তুলে নিয়েছিল। কিন্তু দুঃখের বিষয়, এই স্বাধীন দেশে ন্যায্য আন্দোলন করতে গিয়ে একজন ছাত্র তাঁর দুটি চোখই হারিয়েছেন। তাঁর কী অপরাধ ছিল?’

কাজী ফিরোজ বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এখন স্বীকার করেছে, অপরিকল্পিতভাবে সাতটি কলেজকে অধিভুক্ত করায় অসুবিধার সৃষ্টি হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে টানাপোড়েন চলছে। ছাত্ররা এখনো পরীক্ষার ফল পাননি। এটার জন্য কে দায়ী, বিশ্ববিদ্যালয় দুটি, নাকি ছাত্ররা?

বিরোধী দলের এই সাংসদ বলেন, যে সাতটি সরকারি কলেজকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত করা হয়েছে, তার সব কটিই প্রথম শ্রেণির। এগুলো অধিভুক্ত করার প্রয়োজন ছিল না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক তাঁর হাত শক্তিশালী করার জন্য এগুলোকে অধিভুক্ত করেছিলেন।

সাবেক উপাচার্যের সমালোচনা করে কাজী ফিরোজ বলেন, ‘একটি সিনেট নির্বাচন দিলেন না। এখন ভাইস চ্যান্সেলর নেই, কিন্তু বাড়ি দখল করে রেখেছেন। এর জবাব কে দেবেন?’

পরে তোফায়েল আহমেদ তাঁর বক্তৃতায় ছাত্র আন্দোলনের গৌরবোজ্জ্বল অতীত তুলে ধরে শহীদ আসাদের স্মৃতিচারণা করেন। সাবেক এই ছাত্রনেতা বলেন, একসময় তাঁরা জাতীয়করণের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতেন। এখন আন্দোলন হয় জাতীয়করণের দাবিতে।

অধিভুক্ত সাত কলেজ নিয়ে সরাসরি কিছু না বললেও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভ্যাট-বিরোধী আন্দোলনের প্রসঙ্গ টেনে তোফায়েল আহমেদ বলেন, গতবারের আগের বাজেটে ছাত্রদের বেতনের ওপর কর ধরা হয়েছিল। তাঁরা রাজপথে নেমে এসেছিলেন। পরে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এটা বন্ধ করা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে সাম্প্রতিক উচ্চ আদালতের আদেশের প্রসঙ্গ টেনে ডাকসুর সাবেক সহসভাপতি তোফায়েল বলেন, ডাকসু নির্বাচন নিয়ে হাইকোর্ট রায় দিয়েছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছিল রাজনৈতিক নেতা তৈরির কারখানা। ৫০ থেকে ৬০-এর দশকে এখান থেকে নেতা হয়েছেন। পরবর্তী সময়ে তাঁরা জাতীয় নেতা হয়েছেন। প্রথম আলো


Mountain View

Mountain View

Mountain View