ঝালকাঠিতে ৩ ইউপি চেয়ারম্যান ও ৩ পৌর কাউন্সিলর বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত

প্রকাশিত: ৯:৪৪ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৫, ২০২১ | আপডেট: ৯:৪৪:পূর্বাহ্ণ, মার্চ ২৫, ২০২১

আসন্ন ঝালকাঠি পৌরসভা ও জেলার ৩১টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৩জন কাউন্সিলর এবং ৩জন ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন। বুধবার প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ সময়ে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।
বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিতরা হলেন সদর উপজেলার কেওড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক উপপ্রচার সম্পাদক, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আবু সাইদ খান। মনোনয়নপত্র দাখিলের সর্বশেষ সময় পর্যন্ত কোন প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থী তাদের সাথে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করতে মনোনয়নপত্র জমা দেননি।
নলছিটি উপজেলার নাচনমহল ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত সিরাজুল ইসলাম সেলিম, রাজাপুর উপজেলার গালুয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত গোলাম কিবরিয়া পারভেজ বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন। বুধবার প্রার্থীতা প্রত্যাহারের দিনে প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীরা তাদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করলে বিনাপ্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হন তারা।
ঝালকাঠি পৌরসভার মনোনয়নপত্র দাখিলের সর্বশেষ সময় পর্যন্ত কোন প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থী তাদের সাথে প্রতিদ্ব›িদ্বতা করতে মনোনয়নপত্র জমা না দেয়ায় ৫নং ওয়ার্ডে জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, বর্তমান কাউন্সিলর তরুন কর্মকার এবং ২নং চাঁদকাঠি ওয়ার্ডে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এবং বর্তমান কাউন্সিলর হাফিজ আল মাহমুদবিনা পতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এ ছাড়া ৪নং ওয়ার্ডে জেলা যুবলীগের যুগ্মআহŸায়ক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কামাল শরীফ’র প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থী বর্তমান কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র মাহবুবুজ্জামান স্বপন প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেয়। এতে বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হন কামাল শরীফ।
বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নবনির্বাচিতদের মিস্টি খাওয়ানো ও ফুলেল শুভেচ্ছা জ্ঞাপনে স্ব স্ব এলাকার কর্মী-সমর্থকরা মুখর রয়েছে।
ঝালকাঠি জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, ১৯ মার্চ প্রার্থীতা বাছাইয়ের দিনে ৪উপজেলার ৩১ ইউনিয়নে যেসব মনোনয়ন বাদ দেয়া হয় তাদের মধ্য থেকে মোট ৪২টি আপীল আবেদন করা হয়েছে। যার মধ্যে মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছিলো ৩১টি, প্রার্থীরা অবৈধতার বিরুদ্ধে আপীল করলে তাদের ক্ষমাযোগ্য ত্রæটির কারণে সকলকে বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। বৈধ মনোনয়নপত্র ঘোষণার বিরুদ্ধে অবৈধ ঘোষণার দাবিতে আপীল করা হয়েছিলো ৯টি। এধরনের কোন আপীলই গ্রহনযোগ্য হয় নাই। এছাড়াও একজন ইউপি সদস্য প্রার্থীর মনোনয়নপত্রে সকল কাগজপত্র সঠিক থাকালে ২৫ বছর বয়স না হওয়ায় তার প্রার্থীতা অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। সবমিলিয়ে ঝালকাঠি পৌরসভার ৩টি ওয়ার্ড ও ৩১টি ইউনিয়নের ৩টি ইউনিয়নে বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হওয়ায় আগামী ১১এপ্রিল এসব স্থানে নির্বাচন হচ্ছে না। জেলা নির্বাচন অফিসার ওহিদুজ্জামান মুন্সি এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।