প্রবাসীর স্ত্রীর গোসলের দৃশ্যধারন করে ধর্ষন

নাজমুল হক নাজমুল হক

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১০:২০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২১ | আপডেট: ১০:২০:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১২, ২০২১

মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ
মাদারীপুর সদর উপজেলার ছিলারচর ইউনিয়নের রঘুরামপুর গ্রামের এক প্রবাসীর স্ত্রীর গোসলের দৃশ্যধারন করে ব্লাকমেইলিং ও ধর্ষন করার অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় মাদারীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতে একটি মামলা হলেও পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেনি বলেও অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী নারী। স্থানীয় ও মামলার সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার রঘুরামপুর গ্রামের এক গৃহবধুর গোসলের দৃশ্যধারণ করে মো.দীন ইসলাম রাঢ়ী (৩৭) নামে এক যুবক। সেই দৃশ্য স্বামীর কাছে ও ফেসবুকে প্রকাশের ভয় দেখিয়ে গত বছরের ১৩ নভেম্বর ওই নারীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এরপর ওই নারীকে বিভিন্ন সময় একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কে বাধ্য করে মো. দীন ইসলাম। একপর্যায় ওই নারী আত্মহত্যারও চেষ্টা করে। পরে এই ঘটনায় গত বছর ১৭ নভেম্বর মাদারীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতে মামলা দায়ের করে ভুক্তভোগী নারী। আদালত মামলাটি তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেয়।
ভুক্তভোগী নারী বলেন, গোসলের ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে আমাকে ব্লাকমেইল করে একাধিক বার ধর্ষণ করেছে। সেই ভিডিও আমার স্বামীর কাছে পাঠিয়ে আমার সুখের সংসার ধ্বংস করে দিয়েছে দীন ইসলাম। একারনে আমি আত্মহত্যার চেষ্টাও করেছিলাম। আমার চার বছরের সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে বেঁচে আছি। ভুক্তভোগী নারী মা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমরা গরীব মানুষ তাই পুলিশও আসামী গ্রেপ্তার করেনি। ওর জন্য আমার মেয়ে সংসার ভেঙ্গেছে। আমরা চাই দীন ইসলামের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক।
এব্যপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্মকর্তা ইন্সপেক্টর নাসির উদ্দিন বলেন, ‘মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে তাই তদন্তাধীন বিষয় বিস্তারিত কিছু বলতে চাই না। তবে শিঘ্রই আদালতে চার্জসীট দাখিল করা হবে।’

জিএম/হক