করোনা লক্ষণের অজুহাত দিয়ে অফিসে অনুপস্থিত থাকা যাবে না

প্রকাশিত: ৯:১৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩, ২০২০ | আপডেট: ৭:২৪:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৫, ২০২০

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) শ্র’ম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় থেকে কো’ভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ মো’কাবিলা করার জন্য একটি সতর্কতামূলক অ’ফিস আদেশে এ কথা বলা হয়েছে। এক’ইসাথে শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে দ্রুত প’রীক্ষার পরামর্শও দেওয়া হয়েছে।

অফিস আ’দেশে বলা হয়েছে, প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান শ্রম ও ক’র্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সব কমকর্তা ও ক’র্মচারীকে কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢে’উ মোকাবিলা করার জন্য সত’র্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।

করোনা সংক্রমণ প্র’তিরোধ করার জন্য পাঁচটি অনুশাসন প্র’তিপালনেরও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে অ’ফিস আদেশে। সেগুলো হল:

১. কোনো কর্মকর্তা-ক’র্মচারীর মধ্যে কোভিড-১৯ এর লক্ষণ যেমন- জ্ব’র, সর্দি, কাশি বা অন্যান্য উপসর্গ প্রকাশ পেলে ম’ন্ত্রণালয়ের প্রশাসন শাখাকে অবহিত করে নিজ নিজ বা’সায় অবস্থান করতে হবে।

২. কো’ভিড-১৯ এর উপসর্গ দেখা দিলে দ্রুত পরীক্ষা করাতে হবে এবং প’রীক্ষায় কোভিড-১৯ নেগেটিভ হলে কোনো অ’জুহাতেই অফিসে অনুপস্থিত থাকা যাবে না।

৩. কারও করোনা প’জিটিভ হলে সেই কর্মকর্তা-কর্মচারীকে পরবর্তী কো’ভিড-১৯ নেগেটিভ না হওয়া পর্যন্ত বাসায় অবস্থান করে চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে ম’ন্ত্রণালয়কে অবহিত করে অফিসে উপস্থিত হ’তে হবে।

৪. কর্মস্থলে অবস্থানকালে আ’বশ্যিকভাবে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করে সা’বান পানি দিয়ে হাত ধুতে হবে এবং মাস্ক ও হ্যান্ড স্যা’নিটাইজার ব্যবহার করতে হবে।

৫. পরীক্ষায় কোভিড-১৯ নেগেটিভ/প’জেটিভ যাই হোক মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন শা’খায় ওই রিপোর্টের অনুলিপি পাঠাতে হবে।