নতুন কৌশলে প্রতারণা করে অভিভাবকদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে একটি চক্র

প্রকাশিত: ৬:০৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২০ | আপডেট: ৬:০৬:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২০

গ্রেফতার এড়াতে নি’জের নিরাপত্তায় সিসিক্যামেরা ব্য’বহার করতো প্রতারক। মোবাইল অপা’রেটরদের পুরনো সিরিজের নম্বরে কল দিয়ে ম’য়মনসিংহের ত্রিশাল থেকে টাকা হাতিয়ে নি’তো চক্রটি।

সম্প্রতি চ’ক্রের দুই সদস্য পুলিশের কাছে আটকের পর বে’রিয়ে আসে এ তথ্য। এক প্রতারক জানায়, প্রথমে আ’মরা মধ্যবয়সী একজন’কে কল দেই। কল রিসিভ করলেই বলি আপনার ছে’লের একটি সমস্যা হয়েছে। সে আমার একটি মোবা’ইলে হাত থেকে ফেলে ভে’ঙে দিয়েছে। এখন এর ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। এর প’রে কণ্ঠ নকল করে আমি বলি আব্বা ওনাকে টা’কা দিয়ে দেও। এরপর আ’মার কাছে টাকা চলে আসে।

একে’বারে নতুন কৌশল। এভাবে মানুষের কাছ থেকে সহ’জে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে ময়মনসিংহের বিনয়া’মিন। পদ্ধতি খুব অভিনব। মো’বাইল ফোন অপারেটরদের পুরানো সিরি’জের নম্বরগুলো কোনো বয়স্ক বা মধ্যবয়সীর এবং তা’দের ছেলে আছে। এমন ধারণা থে’কে ফোন দেয়া হয়। কেউ খপ্পরে পড়ে। কে’উ আবার বুঝতে পেরে ফোন কে’টে দেয়।

এমন প্রতা’রণার শিকার হয়ে রাজধানীর উত্তরা প’শ্চিম থানায় মামলা করেন এক ভু’ক্তভোগী। তার ছেলেকে আ’টকে রাখার কথা বলে মো’বাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে হাতিয়ে নেয়া হয় অ’র্থ।

এভাবে বহু অ’ভিযোগ আসার পর বিনইয়ামিন ও তার এ’ক সহযোগীকে ময়মনসিংহের ত্রি’শাল থেকে গ্রেফতার করে গোয়ে’ন্দা পুলিশ। পুলিশ জা’নায়, বিনইয়ামিনের বিরুদ্ধে অস্ত্র মা’মলাসহ ৪ টি মামলা রয়েছে। গ্রেফ’তার এড়াতে সে বাড়ির চা’রপাশে সিসি ক্যামেরা ও ভেত’রে গোপন ক্যামেরা বসিয়েছিলো।

ডিবির সা’ইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বি’ভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মীর মোদ’দাছছের হোসেন বলেন, যে প্র’তারক চক্রকে আমরা গ্রেফ’তার করেছি। তারা প’রের টাকায় বিলাসী জীবনযাপন ক’রেন। তারা মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে নি’জের ঘরের অসবা’বপত্র ও কিনেছেন।

পুলিশ জা’নায়, ২০১৬ সাল থেকে প্রতারণা করে আস’ছিল বিনইয়ামিন। যার মাধ্যমে তি’নি বিলাসী জীবনযাপন ক’রতেন। ৩০ বছর বয়সী বি’নইয়ামিন বিয়ে করেছেন ৯ টি। এ ছা’ড়া অসংখ্য পরকীয়া প্রেমের সঙ্গে জ’ড়িত।