শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অতিরিক্ত ফি নেওয়ার ব্যাপারে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত: ২:২০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২০ | আপডেট: ২:২০:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২০

বুধবার (২৫ নভেম্বর) স’রকারি ও বেসরকারি স্কুলে প্র’থম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত ভর্তি সং’ক্রান্ত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জা’নান তিনি।

এসময় আ’গামী ২০২১ শিক্ষাবর্ষে মাধ্যমিক (এসএ’সসি) ও উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) প’রীক্ষা দুই মাস পেছাতে পা’রে বলে জানান শি’ক্ষামন্ত্রী দীপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ২০২১ শি’ক্ষাবর্ষে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা দুই মাস পেছা’তে পারে। কারণ পরী’ক্ষার আগে আমরা অন্তত তিন মাস সংক্ষিপ্ত সি’লেবাসে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নি’তে চাই।

দীপু মনি আরও বলেন, ডি’সেম্বরের মধ্যেই ২০২০ সালের এইচএ’সসির ফল প্রকাশ করা হবে। কবে থেকে আবার ক্লাস শুরু হবে তা নির্ভর করছে পরিস্থি’তির ওপর। যখনই ক্লাস শুরু হবে শু’রুর দিকে বেশ কিছু স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে স’বাইকে। সেক্ষেত্রে হয়তো স’বার সব দিন ক্লাস নাও হতে পারে। তবে এস’এসসি ও এইচএসসি শিক্ষার্থীদের ক্লাসে জোর দে’ওয়া হবে বেশি। তাদের হয়তো এক’দিন বাদে বাকি সব দিনই ক্লাস নেওয়া হবে।

 

এ বছর স্কুলে ভর্তি হতে কো’নো ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে না জা’নিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রথম থেকে নব’ম পর্যন্ত সব শ্রেণিতেই লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী বাছাই করে’ ভর্তি করানো হবে।

তিনি বলেন, বর্তমা’নে শুধু প্রথম শ্রেণিতে লটারি এবং অন্য ক্লা’সগুলোর জন্য ভর্তি পরীক্ষা হয়। তবে চলমা’ন করোনা পরিস্থিতির কারণে লটারি অনু’ষ্ঠানের সময় আগের মতো অভিভাবকরা শা’রীরিকভাবে উপস্থিত থাকতে পার’বেন না।

 

দীপু মনি বলেন, ঢাকা মহা’নগরীতে ক্যাচমেন্ট এরিয়ায় (বিদ্যা’লয় সংলগ্ন এলাকা) কোটা বিদ্য’মান ৪০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে এবার ৫০ শতাংশ করা হ’বে। ক্লাস্টার ভিত্তিক লটারিতে বিদ্য’মান একটি স্কুল পছন্দের পরি’বর্তে পাঁচটি স্কুল পছ’ন্দের সুযোগ দেওয়া হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, লটা’রিতে পূর্ণ স্বচ্ছতার মাধ্যমেই ভর্তি করা’নো হবে। ভর্তির সময় কোনো শি’ক্ষাপ্রতিষ্ঠান অতিরিক্ত ফি নিলে তাদের বিরুদ্ধে ক’ঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ভর্তি কার্যক্রম ১০ থে’কে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে শেষ ক’রা হবে।

 

আসন্ন বই উৎসবকে কে’ন্দ্র করে দীপু মনি বলেন, প্রতিবছরের মতো এবা’রও পহেলা জানুয়ারিতেই বই উৎ’সব উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ত’বে এ বছর সমাবেশ করে বই বিতরণ করা হ’বে না। কোন পদ্ধতিতে বই দেওয়া হ’বে তার নির্দেশনা স্কুলগুলোকে দিয়ে দেও’য়া হবে।