মাদ্রাসাছাত্রের হাত-পা বেঁধে পেটালেন দুই শিক্ষক

প্রকাশিত: ৩:২৭ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২০ | আপডেট: ৩:২৭:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২০

নারায়ণগঞ্জে এ’কটি মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীকে হা’ত পা বেঁধে ও মুখে কা’পড় গুঁজে লোহার র’ড দিয়ে বেধড়ক পিটুনির অ’ভিযোগ উঠেছে মাদ্রাসার দুই শি’ক্ষকের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর ) সকা’লে উপজেলার তারাবো পৌরসভার মোগ’কুল এলাকার হাদিউল কোরআন ইন্টারন্যাশনাল মাদ্রাসায় এ মর্মান্তিক ঘট’না ঘটে। অভিযুক্ত শিক্ষক রাশেদ ও আব্দুর রহিম ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে।

নির্যাতনের শিকার মাদ্রাসা ছাত্র ইয়াছিনকে গুরুতর আহত অব’স্থায় স্থানীয় সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তার শরীরে বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে। বি’শেষ করে শরীরের পেছন দিকে পিঠ থেকে পা পর্যন্ত রক্ত জমাট বেঁধে গেছে। মাদ্রাসা ছাত্র ইয়াসিন মিয়া উপজেলার উত্তর কা’য়েতপাড়া এলাকার কামাল মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় ছাত্রের বাবা বাদী হ’য়ে অভিযুক্ত দুই শিক্ষককে আসামি করে রূপ’গঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ ঘটনার পর এলাকাবাসী উত্তেজিত হ’য়ে মাদ্রাসাটি বন্ধ করে তালা লাগিয়ে দি’য়েছে।

ছাত্রের বাবার অভিযোগ থেকে জানা যায়, শিক্ষ’কদের নির্দেশ অনুযায়ী মাদ্রাসার উন্নয়নকল্পে দীর্ঘদিন ধরে রাস্তার পাশে মাইকিং করে ছাত্ররা পথচারীদের কাছ থেকে টাকা তো’লার কাজ করছিল। মঙ্গলবার সকালে টাকা তোলার কাজে যেতে কিছুটা বিলম্ব হয় ইয়াছিনের। পরে ইয়াসিন মিয়াকে শিক্ষক রা’শেদ তার কক্ষে ডেকে নিয়ে বিলম্বের কারণ জানতে চান। পরে শিক্ষক রাশেদ ও আব্দুর রহিম দুজনে মিলে ই’য়াছিনের হাত-পা বেঁধে ও মুখে কাপড় গুঁজে দেয়। এরপর তারা লোহার রড দিয়ে বেধড়ক পিটুনি দেন। এক পর্যায়ে আশপা’শের লোকজন ছুটে এসে আহত ইয়াছিনকে উদ্ধার করে রূপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করান।

বাদীর আরো অভিযোগ, ইয়াছি’নকে মারধরের ব্যাপারে কোন ধর’ণের আ’ইনি পদক্ষেপ না নিতে বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছেন মাদ্রাসার অভিযুক্ত দুই ‘শিক্ষক ও তাদের নিয়োজিত সন্ত্রাসীরা।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ উপজে’লা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ্ নুসরাত জাহান ব’লেন, এটা অমানবিক কাজ হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে বিধি অনুযায়ী ব্য’বস্থা নেয়া হবে।

রূপগঞ্জ থানার অ’ফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহমুদুল হাসান ঘটনা’র সত্যতা নিশ্চিত করে  বলেন, ছাত্রের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযো’গ পেয়েছি। সুষ্ঠু তদন্ত করে বিষ’য়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। ঘটনার পর এলা’কাবাসী মাদ্রাসাটি বন্ধ করে তালা লাগিয়ে দিলে অভিযুক্ত দুই শিক্ষক পালি’য়ে যান। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।