যুক্তরাষ্ট্রে ১০০ শিশুর ওপর করোনাভাইরাসের টিকার পরীক্ষা

প্রকাশিত: ৩:৪১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০২০ | আপডেট: ৩:৪১:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রে একশত শিশুর ওপর ফাইজার আবিষ্কৃত করোনাভাইরাসের টিকার পরীক্ষা চালানো হচ্ছে। টিকার কার্যকারিতা ও নিরাপত্তা পরীক্ষার জন্য গত সপ্তাহে তাদের ওপর এই টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে জানা গেছে।

এসব শিশুকে বলা হচ্ছে করোনাভাইরাসের টিকা পরীক্ষার কনিষ্ঠতম স্বেচ্ছাসেবক। এখন তাদেরকে রাখা হয়েছে নজরদারিতে। পরীক্ষা করা হচ্ছে কোনো রকম অস্বাভাবিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয় কিনা।

যুক্তরাষ্ট্রের সিনসিনাতি চিলড্রেনস হাসপাতালের ডাক্তার রবার্ট ফ্রেনেঙ্ক বলেছেন, গত সপ্তাহে ১২ বছর পর্যন্ত বয়সী ওই একশত শিশুকে টিকা দেয়া হয়েছে। ফাইজারের উদ্ভাবিত টিকা দেয়ার পর এখন কি প্রতিক্রিয়া হয় তা পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, এই টিকা কতটা নিরাপদ তারা এখন সে বিষয়টিই যাচাই করে দেখছেন। এ সময়ে তাদের শরীরে কোনো গোটা দেখা দেয় কিনা, ত্বকে লালচে দাগ হয় কিনা, ইঞ্জেকশনের স্থানে কোনো ব্যথা হয় কিনা, জ্বর বা শরীর ব্যথা হয় কিনা তা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছেন চিকিৎসকরা।

এসব শিশু স্বেচ্ছাসেবকের মধ্যে ১২ বছর বয়সী অভিনব অন্যতম। সে সপ্তম গ্রেডের শিক্ষার্থী। তবে রিপোর্ট প্রকাশের ক্ষেত্রে তার পিতামাতা তার নামের শুধু প্রথম অংশ ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছেন। অভিনব জানান, আমি চাই আবার আগের মতো স্কুলে ফিরতে। আশা করি, একটি টিকা যদি এই করোনা ভাইরাসের বিস্তার থামিয়ে দিতো।