ফিটনেসের লড়াইয়ে ফুটবলাররা

প্রকাশিত: ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৬, ২০২০ | আপডেট: ১:৫৬:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৬, ২০২০

স্বল্প সময়ে ফিটনেস ফি’রে পাবার চ্যালেঞ্জ নিয়ে দ্বি’তীয় দিনের মত অনুশীলন ক’রেছেন জাতীয় দলের ক্যা’ম্পে ডাক পাওয়া ফুট’বলাররা। হেড কোচ জে’মি ডে যোগ দেয়ার আগেই দলকে এ’কটা পর্যায়ে নিয়ে যে’তে চান সহকারি কোচ মাসুদ পারভেজ কা’য়সার। ফুটবলাররাও প্র’স্তুত ফিট হওয়ার জন্য শ’তভাগ দিতে।

তিন সপ্তাহের চ্যালেঞ্জ নি’য়ে ফুটবলাদের প্রাত্যহিক অনু’শীলন। নেপাল ম্যাচের আ’গে ফিরে পেতে হবে ফিটনেস। কু’পার টেস্টর পর ভিন্ন ভিন্ন কৌ’শলে চলছে তারই চেষ্টা। তবে দীর্ঘ সময়ের শা’রীরিক আড়ষ্টতা ভাঙ্গাতে বেশ ঘা’ম ঝরাতে হচ্ছে ইয়াসিন, সাদ, মানিক মোল্লাদেরকে।

দেশের বাইরে থাকা হেড কোচ দলের স’ঙ্গে যুক্ত হচ্ছেন চলতি সপ্তাহেই। তার অনু’পস্থিতিতে টিমটাকে একটা কা’ঠামোতে নিয়ে আসার চ্যা’লেঞ্জ সহকারি কোচের। ফু’টবলারদের পর্যবেক্ষণ করছেন খুব কাছ থেকে। তবে খুব এ’কটা সন্তুষ্ট নন তদের বর্তমান ফিটনেস লেভেল নিয়ে।

সহকারী কোচ মাসুদ পার’ভেজ কায়সার বলেন, ফুটবলাররা আমাদের ত’ত্বাবধানে ছিলো। তবে একটা ম্যাচের ফি’টনেস যেমন হওয়া উচিৎ সেটা তা’রা ধরে রাখতে পারেনি। অবশ্য এটা স’ম্ভবও না। ওদের ফিটনেসের অবস্থা সত্যিই ভা’লো না। আমরা চেষ্টা করছি। দেখি ক’তটা উন্নতি করা যায়। জেমির হাতে আমি একটা গো’ছানো দল তুলে দি’তে চাই।

চেনা কন্ডিশনে ১৩ ন”ভেম্বর নেপালের বিপক্ষে মাঠে না’মবে বাংলাদেশ। তবে এই দ’লটার বিপক্ষে সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান মোটেও সুখকর নয় স্বা’গতিকদের। এবার সেই গেরো খুলতে বদ্ধ প’রিকর লাল-সবুজরা। তবে এই ম্যাচ নিয়ে কোন চাপ নি’তে নারাজ তারা।

জাতীয় দ’লের ডিফেন্ডার ইয়াসিন খান ব’লেন, নেপালের বিপক্ষে আমরা ভা’লো রেজাল্ট করতে পা’রিনি গেল ম্যাচগু’লোতে। সেটা আমাদের মাথায় আ’ছে। তাই এই ম্যাচ দু’টো জিততে আমরা শ’তভাগ দিয়ে চেষ্টা করবো। তবে তার আ’গে জরুরী আমাদের ফিট হয়ে উঠা।

দ্বিতীয় দিনের অ’নুশীলনে উপস্থিত ছিলেন ক্যাম্পে যোগ দেয়া ১৬ জনের সবাই। বা’কিদের ফেরার কথা রয়েছে অক্টোবরের শেষ নাগাদ।