নাইজেরিয়ায় বিক্ষোভে ৬৯ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ২:৪৮ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০২০ | আপডেট: ২:৫৯:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০২০

নাইজেরিয়ায় পু’লিশের এক বিশেষ বাহিনীর বিরু’দ্ধে আন্দোলন চলছে। ওই বাহিনীর বিরু’দ্ধে নিরীহ লোকজনের ওপর বর্বর ও নিষ্ঠুর নির্যাতন, মানবাধিকার লঙ্ঘনসহ বি’চার-বহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ রয়েছে। সা’ম্প্রতিক বিক্ষোভে অন্তত ৬৯ জন প্রাণ হারিয়েছে বলে জা’নিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ বুহারি। নিহ’তদের বেশির ভাগই বেসামরিক না’গরিক। তবে নিহতদের ম’ধ্যে কিছু পুলিশ এবং সেনা সদস্যও রয়ে’ছে।

প্রেসি’ডেন্ট বুহারির এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, কি’ভাবে দেশের চলমান অশান্তি ও বিশৃঙ্খলার অব’সান করা যায় সে বিষয় নিয়ে নাইজেরিয়ার সাবেক নেতাদের সঙ্গে এক জরুরি বৈঠকে নি’হতের সংখ্যা ঘোষণা করেছেন প্রেসি’ডেন্ট বুহারি। এ বিক্ষোভের আয়োজন করা একটি গ্রু’প এখনো লোকজনকে বাড়িতে অবস্থানের আ’হ্বান জানিয়েছে। নারীবাদী জোটও লোকজনকে তাদের রাজ্যের কারফিউ অনুসরণ করার পরামর্শ দিয়েছে। কর্মকর্তারা জানিয়ে’ছেন, লাগোসে কারফিউ কি’ছুটা শিথিল করা হবে।

এদিকে, প্রতিবাদকা’রীদের বিক্ষোভ এখন নাইজেরিয়ার ছো’ট-বড় বিভিন্ন শহর ছাড়িয়ে পৌঁ’ছে গেছে বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশেও। প্রতিবাদ বি’ক্ষোভ হচ্ছে লন্ডন থেকে নিউইয়র্ক, বা’র্লিন থেকে টরন্টো থেকে। বিশ্বের যেখা’নেই নাইজেরিয়ানরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছেন সেখা’নেই তারা এ’ই আন্দোলনের প্রতি একাত্ম’তা ঘো’ষণা করছেন। ‘নাইজেরিয়ায় তোলপাড় ফে’লে দেওয়া এই আন্দো’লনের মুখে প্রেসিডেন্ট মুহা’ম্মদ বুহারি পুলিশের বিশেষ বা’হিনী ভেঙে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। এ’কই সঙ্গে যেসব পুলিশ অফিসারের বি’রুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে, বিচা’রের মাধ্যমে তাদের কঠোর শা’স্তি দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। কি’ন্তু তারপরেও এই বিক্ষোভ থা’মেনি।

দে’শটির বড় শহরগুলোয় দু’সপ্তাহের বে’শি সময় ধরে পুলিশের বিত’র্কিত বিশেষ বা’হিনী স্পেশাল অ্যান্টি-রবারি স্কোয়া’ডের (সার্স) বর্বর’তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চলছে। গত ৭ অ’ক্টোবর থেকে বিক্ষোভ শুরুর পর থে’কে অনেক বিক্ষোভকা’রীকে গ্রেফতার করা হ’য়েছে এবং এখন প’র্যন্ত বহুজন হতাহত হয়েছেন। বিবি’সি।’