বিএনপির প্রার্থীর পথসভায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:৫২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৪, ২০২০ | আপডেট: ৯:৫২:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৪, ২০২০

ঢাকা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদের নির্বাচনী পথস*ভায় হামলার অভিযোগ উঠেছে। এই সময় সেখানে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

বিএনপি নেতারা অভিযোগ করে জানান, নৌকা সমর্থকদের হামলায় বিএনপি*র যাত্রাবাড়ী থানা ছাত্র*দলের অন্তত ১৫ জন আহত হয়। বুধবার বিকেলে যাত্রাবাড়ী আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ গেটের সামনে এই পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

বিএনপির নেতাদের অভিযোগ, পথ সভার শেষে*র দিকে পাশে*র শহীদ ফারুক স*ড়ক থেকে আওয়ামী লীগের ২০ থেকে ২৫ জন সমর্থক এসে সভায় হামলা করে। এসময় বিএনপির কর্মীরা তাদের পাল্টা ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়। পরে নির্বাচনী মিছিল নিয়ে শহীদ ফারুক সড়কের দিকে গেলে সেখানে অবস্থি*ত আওয়ামী লীগ প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস থেকে আবার*ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। তখন বিএনপির কর্মীরাও পাল্টা ইটপাটকেল নিক্ষে*প করলে আওয়ামী সমর্থকরা তাদে*র অফিসে*র সাটার লাগিয়ে দেয়।

বিএনপির প্রার্থী সালাউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আওয়ামী লীগের প্রার্থী মনিরুল ইসলাম মনু সন্ত্রাসী বাহিনীর নেতা। সেই সন্ত্রাসী বাহিনী আমাদের ওপর হাম*লা করেছে। সন্ত্রাসীদে*র প্রতিরোধ করে বিএনপি প্রমাণ করেছেন শহীদ জিয়ার অনুসারীরা মরে যায়নি। ১৭ তারিখ কেন্দ্রে কেন্দ্রে আমি নিজে থাকবো। কোনও উষ্কানিমূলক কর্মকাণ্ড হলে দাঁত*ভাঙা জবাব দেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন: কলেজ ছাত্রীকে অপহরণের এক মাস পর উদ্ধার
অন্যদিকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করীম রেজা বলেন, ‘বিএনপির প্রার্থী সালাহউদ্দিন আহমেদের গণসংযোগ থেকে হঠাৎ যুবলীগের ৫০ নম্বর ওয়ার্ড নির্বাচন পরিচালনা কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয়েছে।’

হামলার ঘটনায় যাত্রাবাড়ী থানা ছাত্রদল নেতা রফিকুল ইসলাম, সুমন নাথ সরকার, আদনান, প্রান্ত, আসিফ, নজরুল, আলামিন সরকার মন্টিসহ ১৫জন আহত হন বলেও দাবি করেছে বিএনপি।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল