বসে ভাড়াটে খুনি দিয়ে সৎ মাকে হত্যা!

প্রকাশিত: ২:৪৯ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০২০ | আপডেট: ২:৪৯:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১১, ২০২০

জা’র্মানিতে বসে সৎ মাকে খুনের পরিকল্পনা। সে অ’নুযায়ী ভাড়া করা হয় খুনি। ভাড়াটে সেই খুনি ভা’ড়াটিয়া সেজে ঢোকেন বা’ড়িতে। কুপিয়ে হত্যা ক’রেন সেলিনা খানম না’মের এক গৃহ’বধূকে।

পরি’বারের দাবি, বাবার দ্বিতীয় বিয়ে মে’নে নিতে পারেনি ছেলে। তা’ই এই হত্যাকাণ্ড। ওই ঘটনায় এখ’নো কাউকে গ্রে’ফতার করতে পারেনি পু’লিশ।

রা’জধানীর কামরাঙ্গীরচরের হুজু’রপাড়া এলাকায় পরিবারসহ থাক’তেন সেলিনা খানম। ২ অ’ক্টোবর রাতে দুর্বৃত্তরা তা’কে কুপিয়ে জ’খম করে। হাসপাতালে নে’ওয়ার পর চিকিৎসক তা’কে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

গেলো জা’নুয়ারিতে প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার তি’নমাস পর নিজের শা’লিকাকে বিয়ে করেন এস এম ও’বায়দুল্লাহ। বাবার দ্বি’তীয় বিয়ে মেনে নিতে পারেননি জার্মান প্রবাসী ছেলে বিপ্লব।

বা’বাকে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে হত্যার হুমকি দেন ছেলে। বা’বার দাবি, তার ছেলেই দ্বি’তীয় স্ত্রীকে ভাড়াটিয়া খুনি দিয়ে হত্যা করেছে।

নিহ’তের স্বামী এস এম ওবায়দুল্লাহ বলেন, আমার ছেলেকে মিস’গাইড করা হয়েছে। আমার পরিবার থে’কেই এটা ঘটানো হয়েছে। সন্ত্রাসীরা এরা হলো ভাড়াটে।

পরি’বারের অন্যান্য সদস্যরাও এই খুনের জন্য দা’য়ী করছেন জার্মান প্রবাসী বি’প্লবকে। ছোট মে’য়ে ফা’রজানা ইসলাম ইতি বলেন, যখন আ’মার বাবা বিয়ে করে বা আম’রা জানতে পারি তখন আ’মরা এটা মেনে নিয়েছি। কি’ন্তু এটা নিয়ে আমার ভাই ক্ষি’প্ত ছিল। আমরা ভাইকে আ’মরা কোনোভাবেই বু’ঝাতে পারি নাই।

এ ঘ’টনায় কামরাঙ্গীরচর থানায় অ’জ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে মাম’লা করা হয়। পুলিশ এখ’নো কাউকে গ্রে’ফতার করতে পারেনি।

কাম’রাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্ম’কর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান ব’লেন, বাদী তার ছে’লেকে সন্দেহ ক’রছেন। আমরাও ধা’রণা করছি পারি’বারিক কারণে এ ঘটনা ঘ’টতে পারে। আমরাও সা’র্বিক বিষয় নিয়ে তদন্ত করছি। ত’দন্ত প্রাথমিক প’র্যায়ে। এখনো মা’মালার আসামিকে আমরা আট’ক করতে পারিনি।