গ্রেফতার এড়াতে দাড়ি কেটে ফেলেছে ‘ধর্ষক’ সাইফুর!

প্রকাশিত: ৬:১৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ | আপডেট: ৬:১৯:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

–সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে তরুণী গণধ*র্ষ ণের ঘটনায় হওয়া মা’মলার প্রধান আসামী সাইফুর রহমান আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাত থেকে গ্রে’ফতার এড়াতে মুখের দাড়িও কে’টে ফেলে। তবুও তার রক্ষা হয়নি।

–রবিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) ভোরে সুনামগঞ্জ জে’লার ছাতক থা’নাধীন সীমান্তবর্তী এলাকা খেয়াঘাট থেকে গো’পন তথ্যের ভিত্তিতে পু’লিশ তাকে গ্রে’ফতার করে। গ্রে’ফতারকৃত সাইফুর রহমান লাগঞ্জের চান্দাইপাড়া গ্রামের তাহিদ মিয়ার ছে’লে।

–এদিকে, সাইফুর রহমানকে পু’লিশের উর্ধ্বতন কর্মক’র্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মহানগর পু’লিশের শাহপরাণ থা’না পু’লিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

–ত’দন্ত সংশ্লিষ্ট পু’লিশের এক কর্মক’র্তা জানান, সাইফুর গ্রে’ফতার এড়াতে বাঁচতে তার মুখের দাঁড়ি কে’টে ফেলে। সে সীমান্ত পথ ব্যবহার করে ভা’রতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। গ্রে’ফতারের পর সাইফুর পু’লিশের কাছে ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা দেয়।

–সিলেট মহানগর পু’লিশের শাহপরান থা’নার ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) আব্দুল কাইয়ুম বলেন, ‘ঘটনার পর থেকেই পু’লিশ আ’সামিদের গ্রে’প্তারের চেষ্টা করে যাচ্ছিল। রোববার সকালে পু’লিশের বিশেষ শাখার একটি দল ছাতক থেকে সাইফুরকে গ্রে’প্তার করে। প্রযু’ক্তির সহায়তায় তার অবস্থা নিশ্চিত হওয়ার পর পু’লিশের একটি দল অ’ভিযান চালিয়ে তাকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে।’ বাকি আ’সামিদের গ্রে’প্তারে অ’ভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।

–উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় স্বামী-স্ত্রী’ এমসি কলেজে বেড়াতে যান। এ সময় কলেজ ক্যাম্পাস থেকে ৫-৬ জন জো’রপূর্বক কলেজের ছাত্রাবাসে নিয়ে যায় দম্পতিকে। সেখানে একটি কক্ষে স্বামীকে আ’ট’কে রেখে গৃহবধূকে গণধ*র্ষ ণ করে তারা। খবর পেয়ে গৃহবধূকে উ’দ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতা’লে ভর্তি করে শাহপরাণ থা’না পু’লিশ।

–এ ঘটনায় গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে নগরীর শাহপরাণ থা’নায় ৯ জনের বি’রুদ্ধে মা’মলা করেছেন। তবে এজাহারে ছয় আ’সামির নাম রয়েছে, তিনজন অ’জ্ঞাতপরিচয় আ’সামি রয়েছে। নাম থাকা আ’সামিদের ছয়জনই ছাত্রলীগের কর্মী হিসেবে পরিচিত। তারা হলেন- সাইফুর রহমান, মাহবুবুর রহমান রনি, তারেক, অর্জুন লঙ্কর, রবিউল ইস’লাম ও মাহফুজুর রহমান।

–ইতিমধ্যে গণধ*র্ষ ণের ঘটনায় প্রধান আ’সামি সাইফুর ছাড়াও মা’মলার চার নম্বর আ’সামি অর্জুন লস্করকেও গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ। এনিয়ে আ’লোচিত এই গণধ*র্ষ ণ মা’মলার দুই আ’সামি গ্রে’ফতার হলেন।