মাকে বেঁধে প্রতিবন্ধীকে গণধর্ষণ: ডাকাতির উদ্দেশ্যে বাড়িতে ঢুকেছিল ওরা

প্রকাশিত: ১:৫০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০ | আপডেট: ১:৫০:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২০

-খাগড়াছড়িতে বুদ্ধিপ্রতিব’ন্ধী নারীকে গণধ*র্ষ ণের ঘটনায় গ্রে’ফতার সাত আ’সামি প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দোষ স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছেন জে’লা পু’লিশ সুপার। রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান তিনি। ডা’কাতির উদ্দেশ্যে বাড়িতে ঢুকে এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানায় আ’সামিরা।

–এ সময় মা’মলায় চট্টগ্রাম থেকে ৭ জনকে গ্রে’ফতার করেছে পু’লিশ। ভোরে চট্টগ্রামের পাহাড়তলী ও আকবর শাহ থা’না এলাকা থেকে তাদের গ্রে’ফতার করা হয়।

–রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে খাগড়াছড়ি সদর থা’নার ওসি মোহাম্ম’দ রশীদ সময় সংবাদকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আ’সামিরা চট্টগ্রামে অবস্থান করছে এমন খবরে স্থানীয় পু’লিশের সহযোগিতায় আলাদা অ’ভিযান চালিয়ে ভোরে ৭ জনকে গ্রে’ফতার করা হয়।

–বাকি ২ আ’সামিকেও গ্রে’ফতারের চেষ্টা চলছে। এর আগে গত বুধবার রাতে জে’লা শহরের নিজ বাসার দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে মাকে বেঁধে মে’য়েটিকে পালাক্রমে ধ*র্ষ ণ করে কয়েকজন যুবক।

–এ সময় তারা তিন ভরি স্বর্ণ, নগদ টাকা, মোবাইল ফোন লুট করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় পরদিন অ’জ্ঞাত ৯ জনকে আ’সামি করে খাগড়াছড়ি সদর থা’নায় মা’মলা করেন নির্যাতিতার মা।