বীরগঞ্জের ঝাড়বাড়ীতে ১০ম শ্রেনীর নাবালক ১ স্কুল ছাত্রীতে তোফাজ্জল হায়দার অপহরন করে, থানায় বাপ-বেটার নামে অভিযোগ

এন.আই.মিলন এন.আই.মিলন

দিনাজপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৩:৫৯ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ | আপডেট: ৭:১০:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

এন.আই.মিলন, দিনাজপুর প্রতিনিধি:

 

দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার শতগ্রাম ইউনিয়নের ঝাড়বাড়ী হাট এলাকার সার ব্যাবসায়ী প্রশাদপাড়া গ্রামের আব্দুল জলিলের কন্যা ঝাড়বাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনীর নাবালক ছাত্রী ১৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় পাশের বাড়ীতে বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার সময় অৎ পেতে লুকিয়ে থাকা রাঙ্গালীপাড়া গ্রামের জয়নাল আবেদীনের লম্পট পুত্র তোফাজ্জল হায়দার অপহরন করে নিয়ে পালিয়ে যায়।
তাদের খোজাখুজি করে না পেয়ে ২১ সেপ্টেম্বর বিকালে মেয়ের মা আব্দুল জলিলের স্ত্রী আলফা বেগম বাদী হয়ে বীরগঞ্জ থানায় তোফাজ্জল হায়দার ও তার বাবা জয়নাল আবেদীনের বিরুদ্ধে অপহরনের একটি অভিযোগ দাখিল করেন।

স্কুল ছাত্রীর বাবা আব্দুল জলিল জানায়, কিছুদিন পূর্বে হতে তোফাজ্জল হায়দার তার মেয়েটিকে বিরক্ত করে আসছিলো, যার কারনে সন্মান বাঁচাতে স্কুল পড়–য়া নাবালক মেয়েটির বিয়ে ঠিক করা হয়েছিলো। বিয়ে ঠিক হয়েছে সংবাদ পেয়ে আমার স্কুল ছাত্রী মেয়েকে অসৎ উদ্যেশে অপহরন করে নিয়ে গেছে।

এলাকাবাসী জানায়, ইতিপূর্বে এই লম্পট তোফাজ্জল হায়দার নিজপাড়া ইউনিয়নের একটি মেয়ের সাথে প্রেমের প্রলোভন দিয়ে স্বামীর সংসার নষ্ট করে এবং কিছুদিন আগে আরেকটি মেয়ের সাথে এই রকমই একটা ঘটনা ঘটিছিল। যা তার বাবা তৎবির করে তিন লক্ষ টাকার বিনিময়ে জমি বন্ধক রেখে বিষয়টি নিষ্পত্তি করেন।